'এত ইংরেজি বুঝি না', সঞ্চালককে ফেদেরার

প্রকাশ: ৩০ জুন ২১ । ১৬:৫৯ | আপডেট: ৩০ জুন ২১ । ১৭:৩৪

স্পোর্টস ডেস্ক

রজার ফেদেরার। ছবি -গেটিইমেজেস

প্রথম রাউন্ডে ষষ্ঠ বাছাই রজার ফেদেরারের খেল ছিল আদ্রিয়ান মানারিনোর বিপক্ষে। প্রথম সেট ৬-৪ ব্যবধানে জেতেন ফেদেরার। যদিও এরপরই অঘটনের সম্ভাবনা তৈরি করেছিলেন ফরাসি টেনিস তারকা। পরের দু’টি সেট তিনি জিতে নেন ৭-৬ ও ৬-৩ ব্যবধানে। 

চতুর্থ সেট ৬-২ এ জিতে সমতা ফেরান ফেদেরার। চতুর্থ সেটে ফেদেরার যখন ৪-২ এ এগিয়ে তখন রিটার্নের সময় পা পিছলে ডান পায়ের হাঁটুতে চোট পান মানারিনো। এরপর আর পঞ্চম সেট খেলা সম্ভব হয়নি তার পক্ষে। চোটের কাছে হার মেনে ম্যাচ ছাড়েন। ৩৯ বছর বয়সী ফেদেরার দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠেন।

উইম্বলডনের দর্শকদের নয়নের মণি রজার ফেদেরার। সেই ছবিই আরো একবার ধরা পড়ল। ম্যাচের পর সঞ্চালক ফেদেরারকে এক বছর পর সেন্টার কোর্টে (উইম্বলডনের প্রধান কোর্ট) ফেরার অনুভূতির ব্যাপারে জিজ্ঞেস করেন। তবে সরাসরি নয়, এক ইংরেজি প্রবাদের মাধ্যমে তার অনুভূতি জানতে চান তিনি। এরপরেই ফেদেরার বুদ্ধিদীপ্ত জবাবে উপস্থিত দর্শকদের হাসির ফোয়ারা ছোটে।

ফেদেরার বলেন, ‘আমি বুঝতে পারছি না আপনি কী বলছেন। আমার ইংরেজি খুব একটা ভাল নয়। তবে খেলোয়াড় থেকে সমর্থকরা, সকলেই খুব খুশি যে আবার আমরা কোর্টে নামতে পারছি। বিশেষত উইম্বলডন খেলতে পারছি দর্শকদের উপস্থিতিতে। দর্শক ছাড়া খেলতে হলে সেটা খুবই হতাশাজনক হত। এখানে খেলা বরাবরই বিশাল সৌভাগ্যের ব্যাপার। আশা করছি বৃষ্টি পড়লেও সকলেই এই টুর্নামেন্ট উপভোগ করছেন। তবে এখানে তো এটা (বৃষ্টি পড়া) খুবই সাধারণ ব্যাপার। আমি দ্বিতীয় রাউন্ডে আবার কোর্টে নামতে মুখিয়ে রয়েছি।’



© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com