সহশিল্পীদের মধ্যে কোরবানির মাংস বিতরণ করলেন পরীমণি

প্রকাশ: ২১ জুলাই ২১ । ১৯:২০ | আপডেট: ২১ জুলাই ২১ । ২১:০৫

বিনোদন প্রতিবেদক

ঈদুল আজহার দিন বিকেলে এফডিসির পাশে শাহ পানিপন্থি মাজারে এসে চলচ্চিত্রাঙ্গনের অসহায় শিল্পীদের মধ্যে কোরবানির পশুর মাংস বিতরণ করেন পরীমণি।

বুধবার বিকাল ৬টার দিকে পরীমণি ওই মাজারের সামনে আসেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন চলচ্চিত্র পরিচালক রানা।

এবার এফডিসিতে পশু কোরবানি নিষিদ্ধ হওয়ায় এফডিসির বাইরে ছয়টি গরু কোরবানি দিয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি।

প্রতি বছর এফডিসিতে সহশিল্পীদের জন্য গরু কোরবানি দেন পরীমণি। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও এফডিসিতে ৬টি গরু কোরবানি দেবেন বলে সপ্তাহ খানেক আগে ঘোষণা দেন পরী। 

কিন্তু পরে এফডিসির অভ্যন্তরে পশু কোরবানি না দিতে নোটিশ দেয়  এফডিসি কর্তৃপক্ষ। ফলে এফডিসির বাইরে ছয় গরু কোরবানির সিদ্ধান্ত নেন এ নায়িকা।

এ প্রসঙ্গে পরীমণি বলেন, ‘আমার উদ্দেশ্য ছিল এফডিসির মানুষদের নিয়ে কোরবানি দেওয়া। আমি তাদের নিয়েই কোরবানি দিয়েছি।’

এফডিসিতে প্রথমবার একটি গরু কোরবানি দিলেও পরের বছর দুইটি এবং তার পরের বছর তিনটি গরু কোরবানি দেন পরীমণি। গেলো বছর এফডিসিতে ৫টি গরু কোরবানি দিয়েছেন এ নায়িকা। আর এবার দিচ্ছেন ছয়টি গরু।

পরী বলেছেন, যতদিন বেচেঁ আছেন, তার সামর্থ্যে চলচ্চিত্র পরিবারের জন্য পশু কোরবানি দেবেন। 

তিনি জানিয়েছেন, এরপর প্রতি বছর একটি করে গরু বাড়াবেন কোরবানির জন্য। পরীমণি এখন ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়িকা। ২০১৫ সালে ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় তার। বাংলাদেশের একমাত্র তারকা হিসেবে জনপ্রিয় মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের ‘এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকা’র তালিকায় স্থান পান পরীমণি। 

তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি 'বিশ্বসুন্দরী'। গত বছর মুক্তি পায় ছবিটি। সরকারি অনুদানে তৈরি তার অভিনীত ছবি 'মুখোশ' শুটিং শেষ হয়েছে কিছুদিন আগে। 


© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com