বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস উপলক্ষে এভারকেয়ার হাসপাতালের প্যানেল আলোচনা

প্রকাশ: ২৯ জুলাই ২১ । ১৭:৪৩

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস উপলক্ষে এভারকেয়ার হাসপাতালের প্যানেল আলোচনা

বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস-২০২১ উপলক্ষে সম্প্রতি এভারকেয়ার হাসপাতাল একটি অনলাইন প্যানেল আলোচনার আয়োজন করেছে। এই বছরের থিম ‘আর অপেক্ষা নয়, হেপাটাইটিস প্রতিরোধের এখনই সময়’। 

এভারকেয়ার হাসপাতাল জনগণের মাঝে হেপাটাইটিস নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি ও বৃদ্ধির জন্য এই ভার্চুয়াল আলোচনার আয়োজন করে। 

প্রধান অতিথি হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন-এর মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী অনলাইন প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন। 

এছাড়া ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি.জে. মো. জোবায়দুর রহমান, এভারকেয়ার হাসপাতাল ঢাকার গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগের সিনিয়র কনসাল্টেন্ট এবং কো অর্ডিনেটর ডা. মোহাম্মদ লুতফুল লতিফ চৌধুরী, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইন্সটিটিউট এবং হাসপাতালের ডিরেক্টর অধ্যাপক ফারুক আহমেদ, এভারকেয়ার হাসপাতাল ঢাকার গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগের কনসাল্টেন্ট ডা. এস এম আলী হায়দার এবং সিএমসিএইচের গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. এরশাদ উদ্দিন আহমেদ অংশ নেন। 

এছাড়া গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে চ্যানেল ২৪-এর এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর তালাত মামুন, ডিবিসি নিউজের এডিটর প্রণব সাহা, একাত্তর টিভির হেড অব নিউজ শাকিল আহমেদ অংশ নেন। ভার্চুয়াল আলোচনাটি সঞ্চালনা করেন এভারকেয়ার হাসপাতাল ঢাকার মেডিকেল সার্ভিসের ডেপুটি ডিরেক্টর ডা. আরিফ মাহমুদ।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের স্বাস্থ্যখাত দিন দিন উন্নতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু জনগণের মধ্যে সচেতনতার হার বৃদ্ধি না করা গেলে হেপাটাইটিসের মতো রোগ নির্মূল করা কঠিন হয়ে পড়বে। বাংলাদেশে প্রায় ১ কোটি মানুষ হেপাটাইটিস-এ আক্রান্ত, প্রায় ২০ হাজার রোগী এই রোগে মৃত্যুবরণ করছে এবং আক্রান্ত ১০ জন রোগীর ৯ জনই জানেন না যে তারা এই রোগে আক্রান্ত। 

তিনি বলেন, রাস্তার বিলবোর্ড থেকে শুরু করে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে আমরা জনগণের কাছে পৌঁছাব, তাদের সচেতন করে তুলতে চেষ্টা করব। আমি আশা করবো সর্বস্তরের মানুষ আমার পাশে থাকবেন এবং একযোগে কাজ করবেন।  

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, হেপাটাইটিস নিয়ে যে জনগণের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছে, তা স্পষ্ট। আমাদের দেশে এখন এমন মানুষ আছে যারা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত। তাই জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির বিষয়ে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে। আমরা যারা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আছি, আমাদের কাজ হবে যার যার অবস্থান থেকে গণসচেতনতা সৃষ্টি করে হেপাটাইটিস নির্মূলে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা। অন্যথায় এই আলোচনা শুধু আলোচনাই থেকে যাবে। আমি আশা করব দেশের সবাই সম্মিলিতভাবে এই ভাইরাস দমনে কাজ করবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি.জে. মো. জোবায়দুর রহমান বলেন, নগরস্বাস্থ্য ঠিক রাখতে আমরা সর্বদা সচেষ্ট। সর্বস্তরের মানুষকে সেবা দিতে এবং সচেতনতা গড়ে তুলতে আমরা নিয়োজিত আছি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com