সূত্রাপুরের ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ‘এতটুকু বাসা’ ভেঙ্গে ফেলা হবে

প্রকাশ: ২৭ আগস্ট ২১ । ১৮:৫৪ | আপডেট: ২৭ আগস্ট ২১ । ১৮:৫৪

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর পুরান ঢাকার সূত্রাপুরে হেলে পড়া ছয়তলা ভবন ‘হাজী বাড়ি: এতটুকু বাসা’ ভেঙে ফেলা হবে।

ডিএসসিসির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, শুক্রবার হতে ভবনটির দরজা-জানলা ভাঙার মাধ্যমে ছয়তলা ভবনটি ভেঙে ফেলার প্রাথমিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের তনুগঞ্জ লেনের কুলুটৌলায় হেলে পড়া ঝুঁকিপূর্ণ ওই ভবনটির মূল অবকাঠামো ভাঙার কার্যক্রম শুরু হবে। 

গত ১৯ আগস্ট ছয়তলাবিশিষ্ট ‘হাজী বাড়ী: এতটুুকু বাসা’ ভবনটি হেলে পড়ে। 

সেদিন রাজউক চেয়ারম্যান এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, দক্ষিণ সিটির ঝুঁকিপূর্ণ ভবন সংক্রান্ত কারিগরি কমিটির সভাপতি ও করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী মো. রেজাউর রহমান ও সদস্য সচিব খায়রুল বাকের, ঢাকা জেলার জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম, ডিএসসিসির ঝুঁকিপূর্ণ ভবন সংক্রান্ত আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি ও অঞ্চল-৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তাদের সঙ্গে ছিলেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, তিতাস গ্যাস ও ডিপিডিসির শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা। 

জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সহায়তায় ভবনের বাসিন্দাদেরকে নিরাপদে বের করে আনা হয়। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ ভবনটির গ্যাস সংযোগ এবং ডিপিডিসি বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। 

পরে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন সংক্রান্ত কারিগরি কমিটি ও আঞ্চলিক কমিটির সদস্যরা ভবনটিকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে সেখানে স্টিকার সাটিয়ে দেয়। ঢাকা জেলা প্রশাসন ভবনটি সিলগালা করে দেয়। 

রাজউক গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গত ২২ অগাস্ট ভবনটি অপসারণে রাজউক হতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ বরাবরে পত্র দেয়। 

ঝুঁকিপূর্ণ ভবনসমূহ অপসারণ বা ঝুঁকিমুক্ত করার বিষয়ে গঠিত ডিএসসিসির কারিগরি কমিটি ২৫ অগাস্টের সভার কার্যবিবরণী এবং রাজউকের ২২ অগাস্টের পত্র মারফত অনুরোধ জানায় দক্ষিণ সিটির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসকে। 

তাপস গত ২৫ অগাস্ট কারিগরি কমিটির কার্যবিবরণীতে সাক্ষর করেন। সেদিনই দক্ষিণ সিটির অঞ্চল-৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তার স্বাক্ষরে ভবনটি ‘নিজ উদ্যোগে, নিজ খরচে ও নিজ ব্যবস্থাপনায় জননিরাপত্তা নিশ্চিতপূর্বক ভেঙে ফেলার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে’ ভবন মালিককে পত্র দেওয়া হয়।  

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬ অগাস্ট ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভবনটির সিলগালা খুলে দেয় এবং সেখানে ভবনের বাসিন্দাদের আসবাপত্র নিয়ে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। 

ডিএসসিসি জানিয়েছে, শনিবার দুপুর সাড়ে ১১টায় দক্ষিণ সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ ও রাজউক চেয়ারম্যান এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরীসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ভবন ভাঙার কার্যক্রম পরিদর্শন করবেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com