মডার্নার সিইওর আশা

এক বছরের মধ্যে শেষ হবে মহামারি

২৫ সেপ্টেম্বর ২১ । ০০:০০

সমকাল ডেস্ক

মডার্নার সিইও

যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা টিকা প্রস্তুতকারক কোম্পানি মডার্নার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টেফানি ব্যানসেল বলেছেন, এক বছরের মধ্যেই করোনাভাইরাস মহামারি শেষ হতে পারে। টিকার উৎপাদন বৃদ্ধি ও মানুষের মধ্যে অ্যান্টিবডি তৈরির কারণে এটা ঘটবে বলে তার আশা। এদিকে, করোনাভাইরাস একসময় সাধারণ ঠান্ডা জ্বরে পরিণত হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন করোনার অন্যতম টিকা আবিস্কারক বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী সারাহ গিলবার্ট। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

সুইজারল্যান্ডের একটি পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ব্যানসেল বলেছেন, গত ছয় মাসে করোনার টিকা উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির দিকে তাকালে দেখা যাবে, আগামী বছরের মাঝামাঝিতে প্রতিষেধকটি সবার কাছে সহজলভ্য থাকবে। তাতে বিশ্বের প্রত্যেককে টিকা দেওয়া সম্ভব হবে। প্রয়োজনে বুস্টার ডোজও দেওয়া সম্ভব হবে। মডার্নার সিইও বলেন, যারা টিকা পাবেন না, তাদেরও প্রাকৃতিকভাবে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠবে। যারা টিকা নেবেন, আসন্ন শীত তাদের বেশ আনন্দে কাটবে। কিন্তু যারা টিকা নেবেন না, তারা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতেই থাকবেন।

এদিকে, বুধবার যুক্তরাজ্যের রয়েল সোসাইটি অব মেডিসিনের এক ওয়েবিনারে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা উৎপাদনকারী দলের অন্যতম প্রধান অধ্যাপক সারাহ গিলবার্ট বলেন, আমরা এখনও মানুষকে সংক্রমিত করতে সক্ষম চারটি আলাদা করোনাভাইরাসের সঙ্গে বসবাস করছি। কিন্তু সেগুলো নিয়ে আমরা খুব বেশি চিন্তিত হই না। এক সময় এই সার্স-কভ-২ (নভেল করোনাভাইরাস) সেগুলোর মতোই হয়ে যাবে। তিনি বলেন, করোনা আরও প্রাণঘাতী হয়ে উঠবে- এমন সম্ভাবনা খুব কম। ভবিষ্যতে এই ভাইরাস ক্রমেই শক্তি হারিয়ে ফেলবে। কেননা, তখন তাকে কভিড প্রতিরোধী জনগোষ্ঠীর মাধ্যমেই ছড়াতে হবে।

সারাহ বলেন, ভবিষ্যৎ মহামারির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। সামান্য বিনিয়োগ দীর্ঘমেয়াদে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বাঁচাতে পারে। অতীতে প্রাদুর্ভাব সৃষ্টি করেছে এবং ভবিষ্যতেও করবে- এমন রোগের টিকা বানাতে মহামারির আগে থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com