ব্রিটিশ রয়্যাল ফাউন্ডেশনের পুরস্কারে ফাইনালিস্ট বাংলাদেশের কোম্পানি

প্রকাশ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২১ । ২০:১৬ | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২১ । ২০:১৬

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

সোলশেয়ারের লোগো

বাংলাদেশি কোম্পানি সোলশেয়ার চলতি বছর পরিবেশ সুরক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিশ্বের মর্যাদাপূর্ণ ‘দ্য আর্থশট প্রাইজ’ প্রতিযোগিতায় ফাইনালিস্ট নির্বাচিত হয়েছে। জলবায়ু ক্যাটাগরিতে তিন ফাইনালিস্টের একটি নির্বাচিত হয়েছে সোলশেয়ারের প্রকল্প ‘সোলবাজার’।

গতবছর যুক্তরাজ্যের রয়্যাল ফাউন্ডেশন দ্য আর্থশট প্রাইজ ঘোষণা করে। এ পুরস্কারের ঘোষণা দেন ব্রিটিশ রাজ পরিবারের সদস্য প্রিন্স উইলিয়াম এবং প্রখ্যাত প্রকৃতি বিষয়ক ইতিহাসবিদ ডেভিড অ্যাটেনরোরো।

জাতিসংঘের ২০৩০ সাল মেয়াদি স্থিতিশীল লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বিশ্ব পরিবেশ সুরক্ষায় পাঁচটি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হবে। চলতি ২০২১ সাল থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত প্রতিবছর জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্য থেকে পাঁচ ক্যাটাগরিতে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত করা হবে। চ্যাম্পিয়ন প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের আগে প্রতি ক্যাটাগরিতে তিনজন করে ফাইনালিস্ট নির্বাচিত হবে। এরমধ্যে প্রথম বছরেই একটি বাংলাদেশি কোম্পানি ফাইনালিস্ট নির্বাচিত হলো।

সোলশেয়ার প্রতিষ্ঠিত হয় ২০১৫ সালে। এটি প্রতিষ্ঠা করেন জার্মান নাগরিক ড. সেবাস্টিন গ্রো। সমকালের সঙ্গে আলাপে তিনি জানান, ২০১৪ সালে সৌরশক্তি বিষয়ে পিএইচডি গবেষণার জন্য তিনি বাংলাদেশে আসেন। তার স্ত্রী বাংলাদেশি নাগরিক। ২০১৫ সালে তিনি বাংলাদেশি অংশীদারদের নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেন সোলশেয়ার। এর মূল লক্ষ্য ছিল পরিবেশবান্ধব সৌরশক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে তা দেশের তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া।

এজন্য তিনি সোলশেয়ারের পক্ষ থেকে সোলবাজার প্রকল্প হাতে নেন। সেই প্রকল্প এখন বিস্তৃত হয়ে সারাদেশে সৌরশক্তি নির্ভর বিদ্যুৎ উৎপাদনে ৭৬টি গ্রিড স্থাপন করেছে। এসব গ্রিডের মাধ্যমে বর্তমানে প্রায় আড়াই হাজার পরিবারের ১০ হাজার মানুষ স্বল্পমূল্যে সৌরশক্তি চালিত বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছেন। এ বিদ্যুতের বিল মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পরিশোধ করেন গ্রাহকরা। আবার যারা এ বিদ্যুৎ ব্যবহার করছেন, তারা স্বল্প আয়ের মানুষ।

এছাড়া এই প্রকল্পের আওতায় ইজিবাইক ও ব্যাটারিচালিত মিশুকের জন্য পরিবেশবান্ধব উন্নত ব্যাটারি এবং সৌর বিদ্যুতের মাধ্যমে এগুলো রিচার্জ করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে নামমাত্র খরচে।

ড. সেবাস্টিন আরও জানান, বর্তমানে সোলশেয়ারের ছয়জন পরিচালক আছেন। এরমধ্যে তিনজন বাংলাদেশি এবং তিনজন জার্মান নাগরিক।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com