গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ২০ নভেম্বর ২১ । ১৭:৩৪ | আপডেট: ২০ নভেম্বর ২১ । ১৭:৫৬

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের মামলায় আল আমিন নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হলে আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভিকটিমের পরিবার জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ ফোন করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করে।

অভিযুক্ত আল আমিন কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বেগ বাড়ির মৃত হানিফের ছেলে। বর্তমানে তিনি বায়েজিদ থানার আরেফিন নগর মুক্তিযোদ্ধা কলোনির ফজর আলীর বাড়িতে বসবাস করেন।

বায়েজিদ থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান বলেন, ভিকটিমের বড় বোন থানায় ধর্ষণের অভিযোগ করলে পুলিশি সহায়তায় ভিকটিমকে রাত তিনটার দিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরবর্তীতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসিতে) ভর্তি করেন ।

ওসি আরও বলেন, ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত আল আমিনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাকে কারাগারে পাঠায় আদালত।

বাদীর বোন জানান, তার ছোট বোন শুক্রবার রাত ৮টা ১০ মিনিটের সময় স্থানীয় রানার কলোনি থেকে বের হয়ে আরেফিন নগর মুক্তিযোদ্ধা মসজিদ সংলগ্ন দোকানের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় আসামি আল আমিন তার পিছু নেয়। অভিযুক্ত প্রথমে ভিকটিমের সাথে কথা বলার চেষ্টা করেন। কিন্তু ভিকটিম তার সাথে কথা না বলে বাসায় দিকে রওয়ানা দেন। এ সময় নির্জনতার সুযোগে আল আমিন বাদীর বোনের মুখ চেপে ধরে বায়েজিদ থানাধীন কামাল পাহাড়ের উত্তর দিকে মহানগর পাহাড় সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে যায়। পরে সেখানেই অভিযুক্ত ভিকটিমকে ধর্ষণ করেন। পরে ভিকটিম তার বোনের বাসার দরজার সামনে গিয়ে চিৎকার করে পড়ে যায়। এ সময় ভিকটিমের বোনসহ উপস্থিত সবাই মেয়েটিকে উদ্ধার করে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দেন। পরে পুলিশ গিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে।


© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com