নৌকার মনোনয়ন পেলেন ধর্ষণ মামলার আসামি

প্রকাশ: ২৪ নভেম্বর ২১ । ২১:০৬ | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২১ । ২১:০৬

সিরাজদীখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

মীর লিয়াকত আলী

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার কোলা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ধর্ষণ মামলার আসামি মীর লিয়াকত আলী কারাবন্দি থেকেই আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। 

২০১৭ সালে কোলা ইউনিয়ন পরিষদের কক্ষে এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়। ওই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ধর্ষণের ঘটনার ৯ মাস পর ওই ছাত্রীর মা সিরাজদীখান থানায় মামলা করেন। সেই মামলার প্রধান আসামি মীর লিয়াকত আলী।

নৌকার মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়ে সিরাজদীখান থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, 'মীর লিয়াকত আলী জেলে রয়েছেন। তার পক্ষে আমাদের কাছে সিভি পাঠানো হয়। উপজেলা থেকে যে কজন নৌকার মনোনয়ের জন্য আবেদন করেছেন, সবার আবেদন জেলা আওয়ামী লীগের কাছে পাঠানো হয়। এখান থেকে কারও নাম বাদ দেওয়ার এখতিয়ার আমাদের নেই। জেলা আওয়ামী লীগ যাকে ইচ্ছা বাদ দিয়ে নাম কেন্দ্রে পাঠায়। মীর লিয়াকত আলীর নামটি তারা কেন্দ্রে পাঠিয়েছেন।'

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. লুৎফর রহমান বলেন, মীর লিয়াকত আলী কোলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সদস্য। তিনি বর্তমানে একটি মামলায় অভিযুক্ত হয়ে জেলে আছেন। তবে অভিযোগটি বিচারাধীন। তার পক্ষে তার ছেলে চতুর্থ ধাপের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আবেদন জমা দেন। আমরা অন্যদের সঙ্গে তার নামের তালিকাটিও কেন্দ্রে পাঠাই এবং সেখানেও আমরা উল্লেখ করে দেই যে, তিনি বর্তমানে জেলে আছেন। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ তাকে কোলা ইউনিয়নে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়ে নাম ঘোষণা করেছে।

কোলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. কপাসের বলেন, ধর্ষণের ৯ মাস পর স্কুলছাত্রীর মা সিরাজদীখান থানায় মামলা করেন। 

চেয়ারম্যান সেই মামলায় অনেক দিন পলাতক থাকার পর আড়াই মাস আগে হাজিরা দিতে গেলে আদালত তাকে জেলে পাঠান।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com