কর্মসূচিতে না যাওয়ায় ঢাবি শিক্ষার্থীকে 'চড়-থাপ্পড়' ছাত্রলীগ নেতার

প্রকাশ: ২৬ ডিসেম্বর ২১ । ২২:২৭ | আপডেট: ২৬ ডিসেম্বর ২১ । ২২:২৮

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

সত্যজিৎ দেবনাথ

সংগঠনের কর্মসূচিতে না যাওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে এক ছাত্রকে রুমে গিয়ে ‘চড়-থাপ্পড়’ ও 'অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ' করে সিট থেকে নামিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে হল ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে।

রোববার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী সাগর সরকার হল ছাত্রলীগের পদপ্রার্থী সত্যজিৎ দেবনাথের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে হল কর্তৃপক্ষকে লিখিত দিয়েছেন। 
তবে শারীরিক আক্রমণের অভিযোগ অস্বীকার করে 'ধমক' দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন সত্যজিৎ।

হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিহির লাল সাহা বলেন, 'আমরা ঘটনাটা জেনেছি এবং লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টা খতিয়ে দেখে আমরা প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেব।'

সত্যজিৎ দেবনাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ব বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী। তিনি জগন্নাথ হল ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উৎপল বিশ্বাসের সঙ্গে রাজনীতি করতেন। সামনে হল কমিটিতে সত্যজিৎ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের গ্রুপ থেকে হলের পদপ্রত্যাশী।

সাগর সরকারের অভিযোগ, আগামী ২৯ ডিসেম্বর তার ফাইনাল পরীক্ষা। এজন্য তিনি ছাত্রলীগের প্রোগ্রামে নিয়মিত যেতে পারছেন না। রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে খাওয়া-দাওয়া করে বিশ্রাম করার সময় দলবলসহ সত্যজিৎ দেবনাথ তার রুমে ঢুকে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুর করেন। এক পর্যায়ে সত্যজিৎ তাকে শারিরীকভাবে নির্যাতন করেন, চড়-থাপ্পড় মারেন। পরে ১০ তলা থেকে তার বিছানাপত্র নিচে ফেলে দেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শারীরিক আক্রমণের অভিযোগ অস্বীকার করেন সত্যজিৎ। তিনি বলেন শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়নি। একটু কথা কাটাকাটি হয়েছে বা ধমক-টমক দেওয়া হয়েছে। শারীরিক নির্যাতনের কথাটা বাড়িয়ে বলা হচ্ছে। 

ধমক দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাগর প্রোগ্রামে অনিয়মিত ছিলো। তাই দেওয়া হয়েছে।

হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উৎপল বিশ্বাস বলেন, মাস্টার্সের একজন ছাত্রের সঙ্গে এ ধরনের আচরণ দুঃখজনক। আমাকে বিষয়টা এখন জুনিয়র ফোন করে জানিয়েছে। হলে না থাকায় বিষয়টা আমি পুরোপুরি জানতে পারিনি। 

তিনি বলেন, হলে আমরা প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারি থাকলেও এখন আর ওভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। নামে মাত্র আমরা প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারি আছি। সামনে হল কমিটি দেওয়া হবে, তাই গ্রুপিং করে জুনিয়রদের নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।'

অভিযোগের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, প্রোগ্রাম না যাওয়ার কারণে কোনো শিক্ষার্থীর গায়ে হাত তুলবে, এধরনের রাজনীতি ছাত্রলীগ করে না। ছাত্রলীগের কোনো প্রার্থী কেন, কোনো কর্মীও এটা করার সুযোগ নাই। কেউ করে থাকলে আমরা সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেব।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com