জাহানারার অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি: বিসিবি

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২২ । ২২:৫৫ | আপডেট: ১১ জানুয়ারি ২২ । ২২:৫৫

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জাতীয় দল থেকে জাহানারা আলমের হঠাৎ বাদ পড়া বিস্ময়কর ছিল। সেটাকে নতুন মোড় দিয়েছে কোচ মাহমুদুল ইমন ও নির্বাচক মঞ্জুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরীকে দেওয়া জাহানারার লিখিত অভিযোগ। এই ফাস্ট বোলার লিখিত অভিযোগে কোচ ও ম্যানেজারের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনেছেন। 

তবে বোর্ড কর্মকর্তারা জানান, জাহানারার অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি। বরং শৃঙ্খলাজনিত কারণে অভিজ্ঞ এ নারী ক্রিকেটারের বাদ দেওয়াকে দলের স্বার্থে যৌক্তিক মনে করেন তারা। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন কর্মকর্তা জানান, কোচিং ও সাপোর্ট স্টাফ নিয়োগে হস্তক্ষেপ করছিলেন জাহানারা। বিসিবি নারী বিভাগের চেয়ারম্যান শফিউল আলম নাদেলের কথাতেও সেটা পরিষ্কার। যদিও এ ব্যাপারে জাহানারার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। বিসিবি থেকে তাকে বারণ করে দেওয়া হয়েছে মিডিয়ায় কথা বলতে।

জাহানারার লিখিত অভিযোগ এবং বিসিবির অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে মঙ্গলবার শফিউল আলম নাদেল বলেন, 'কোনো খেলোয়াড়ের বাদ পড়া, আবার যুক্ত হওয়া এটা খুব স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। আমরা আমাদের দলটা সাজাচ্ছি। কিন্তু আমার কম্পিউটারে কাকে নিচ্ছি, টিমবয় কাকে নিচ্ছি, এটা কে নির্ধারণ করে দেবেন?' 

শৃঙ্খলা প্রসঙ্গ টেনে তিনি আরও বলেন, 'আমার কাছে কিছু প্রমাণ আছে। আমি দেখাতে চাই না, দেখালে আপনারাই লজ্জা পাবেন। এখানে পক্ষ-বিপক্ষের বিষয় নেই। আমরা স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় যেতে চাই। তারা আমাদের সন্তানতুল্য, ছোট ভাই, ছোট বোনের মতো। তাদের চলার পথে কিছু ভুলভ্রান্তি থাকতেই পারে। সেটা অভিভাবকসুলভ মনোভাব দিয়ে সংশোধন করার দায়িত্ব আমাদের।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com