ইন্দোনেশিয়ার নতুন রাজধানী 'নুসানতারা'

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২২ । ১৯:১৬ | আপডেট: ১৯ জানুয়ারি ২২ । ১৯:১৬

অনলাইন ডেস্ক

জঙ্গলাকীর্ণ এই এলাকায় সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী। ছবি: বিবিসি

ইন্দোনেশিয়া ঘোষণা দিয়েছে, জাকার্তার বদলে তারা যে নতুন রাজধানী তৈরি করতে যাচ্ছে, তার নাম হবে 'নুসানতারা'। জাভানিজ ভাষায় নুসানতারার অর্থ দ্বীপপুঞ্জ। দেশটির দ্রুত ডুবন্ত শহর জাকার্তা থেকে রাজধানী সরিয়ে নেয়ার একটি প্রস্তাব পার্লামেন্ট অনুমোদনের পর এই ঘোষণা দিয়েছে সরকার। খবর বিবিসির। 

বোর্নিও দ্বীপ থেকে ১ হাজার ৩০০ কিলোমিটার দূরের রাজধানী তৈরি করার প্রথম প্রস্তাব করা হয়েছিল ২০১৯ সালে।

তবে সমালোচকরা বলছে, নতুন এই নাম বিভ্রান্তি তৈরি করতে পারে। সেই সঙ্গে রাজধানী সরিয়ে নেয়ার এই পদক্ষেপে পরিবেশগত বিষয়গুলোকেও উপেক্ষা করা হয়েছে।

ভিড়বহুল জাকার্তা দুষিত হয়ে পড়েছে এবং ভূ-গর্ভস্থ পানির মাত্রাতিরিক্ত উত্তোলনের ফলে আশঙ্কাজনক হারে শহরটি ডেবে যাচ্ছে। জাভা সাগরের এই বৃহত্তম দ্বীপে এক কোটির বেশি মানুষ বসবাস করে।

বোর্নিও প্রদেশের ইস্ট কালিমানতানে নতুন রাজধানী তৈরি হলে জাকার্তা থেকে চাপ কিছুটা কমবে বলে সরকার আশা করছে।

সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, জঙ্গল এবং ওরাংওটাং প্রাণীর আবাসস্থল ইস্ট কালিমানতানে মাত্র ৩৭ লাখ মানুষ বসবাস করে।

পার্লামেন্টে দেয়া ভাষণে ইন্দোনেশিয়ার পরিকল্পনা মন্ত্রী সুহার্সো মোনোয়ার্ফা বলেছেন, নতুন রাজধানী জাতির পরিচয়ের নতুন প্রতীক হবে, সেই সঙ্গে এটি হবে অর্থনৈতিক উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দু।

তবে সমালোচকরা বলছেন, সেখানে নতুন শহর নির্মাণের কর্মকাণ্ডের ফলে পাম চাষিদের বিস্তার ঘটবে। সেই সঙ্গে নানা ধরনের বন্যপ্রাণী ও সবুজ চিরহরিৎ অরণ্য ঝুঁকিতে পড়বে।

নতুন রাজধানীর যে নাম ঘোষণা করা হয়েছে, সেটিও সামাজিক মাধ্যমে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

ইন্দোনেশিয়া সরকারের বৃহৎ প্রকল্পের অন্যতম রাজধানী স্থানান্তরের এই পদক্ষেপে খরচ হবে প্রায় ৪৬৬ ট্রিলিয়ন রুপি বা তিন হাজার দুইশো ৪০ কোটি ডলার।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com