কোয়ার্টার ফাইনালে যুবাদের প্রতিপক্ষ ভারত

প্রকাশ: ২৪ জানুয়ারি ২২ । ১৩:৩৩ | আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২২ । ১৩:৩৩

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রথম ম্যাচেই ইংল্যান্ডের কাছে হেরে বসেছিল বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। লজ্জাজনক এ হারে জটিল হয়ে গিয়েছিল তাদের শিরোপা ধরে রাখার মিশন। তাই দুর্বল আরব আমিরাতের বিপক্ষেও টেনশনের চোরা স্রোত বয়ে যাচ্ছিল। তবে সে ম্যাচে দাপটের সঙ্গে আরব আমিরাতকে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে যুবারা। শেষ আটে তাদের প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট ভারত, গত আসরে যাদের হারিয়ে শিরোপা জিতেছিলেন আকবর-শরিফুলরা। আগামী শনিবার সেমিতে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দুই দল।

বাঁচা-মরার লড়াইয়ে পরিণত হওয়া গ্রুপের শেষ ম্যাচে বৃষ্টি আইনে আরব আমিরাতকে ৯ উইকেটে হারিয়ে দেয় বাংলাদেশ যুব দল। আঁটোসাঁটো বোলিংয়ে আমিরাতকে ১৪৮ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর দারুণ সূচনা করেন দুই ওপেনার মাহফিজুল ও ইফতেখার। উদ্বোধনী জুটিতে তারা দাপট দেখিয়ে ৮৬ রান তুলে নেন। তবে ৩৭ রান করে ইফতেখার আউট হওয়ার পরই নামে বৃষ্টি। প্রায় দেড় ঘণ্টা পর খেলা শুরু হলে ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে বাংলাদেশের সামনে ৩৫ ওভারে ১০৭ রানের টার্গেট দেওয়া হয়। মিনিট দশেকের মধ্যেই সেই লক্ষ্যে পৌঁছে শেষ আট নিশ্চিত করেন মাহফিজুল ও নাবিল। ৬৯ বলে ৬টি চার ও দুটি ছয়ে ৬৪ রানে অপরাজিত থেকে এ রান তাড়ায় বড় ভূমিকা রাখেন মাহফিজুল।

ওয়ার্নার পার্কের উইকেট সকালের দিকে খানিকটা পেস-বান্ধব থাকে। সকালে টসে জিতে সে সুবিধা কাজে লাগাতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতে মোটেও দ্বিধায় ভোগেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক রকিবুল হাসান। তৃতীয় ওভারেই জোড়া আঘাত হেনে অধিনায়কের সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা প্রমাণ করেন পেসার আশিকুর জামান। এরপর অন্য দুই পেসার তানজিম হাসান ও রিপন মণ্ডল জ্বলে উঠলে ১৪৮ রানে গুটিয়ে যায় আমিরাত। এ জয়ের পেছনে বোলারদের মূল কৃতিত্ব দিয়েছেন অধিনায়ক রকিবুল, 'এই ব্র্যান্ডেুর ক্রিকেটই আমরা খেলে থাকি। পেস ও স্পিনে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরা ও দারুণ ফিল্ডিং আমাদের বৈশিষ্ট্য। গত দুই ম্যাচেই আমাদের বোলিং ভালো হয়েছে।' তিনি আরও যোগ করেন, 'প্রথম ম্যাচ হারের পর টানা দুই ম্যাচ জিতে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করতে পারায় আমরা খুশি।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com