ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় মুসলিমাকে

তিনদিন পর খণ্ডিত মাথা উদ্ধার, গ্রেপ্তার ২

প্রকাশ: ২৯ জানুয়ারি ২২ । ২১:৪৮ | আপডেট: ২৯ জানুয়ারি ২২ । ২১:৪৮

খুলনা ব্যুরো

প্রতীকী ছবি

প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার কথা বলে প্রথমে ধর্ষণ, পরে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয় খুলনার ফুলতলা উপজেলার তরুণী মুসলিমাকে। মরদেহ যাতে কেউ চিনতে না পারে, এজন্য তার গলা ও মাথা বিচ্ছিন্ন করে ফেলে হত্যাকারীরা। হত্যার তিন দিন পর শনিবার দুপুরে উপজেলার যুগ্মিপাশার নির্মাণাধীন একটি ভবন থেকে মুসলিমার খণ্ডিত মাথা উদ্ধার করেছে র্যা ব। এ ছাড়া গ্রেপ্তার করা হয়েছে রিয়াজ ও সোহেল নামে দু'জনকে। তারা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

এর আগে গত বুধবার সকালে ফুলতলা উপজেলার উত্তরডিহি এলাকার একটি ধানক্ষেত থেকে মাথাবিহীন নারীর বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রথমে অজ্ঞাত পরিচয় হিসেবে লাশটি উদ্ধার করা হলেও দুপুরের দিকে নিহতের দুই বোন লাশের হাত-পা দেখে সেটি মুসলিমার বলে শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় নিহতের বোন আকলিমা খাতুন বাদী হয়ে রিয়াজসহ অজ্ঞাতপরিচয় ৫-৬ ব্যক্তিকে আসামি করে ফুলতলা থানায় মামলা করেন। একটি ফোন পেয়ে মুসলিমা রাত ৮টায় বাড়ি থেকে বের হয়েছিল বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

মুসলিমার মাথা উদ্ধারের পর ওই স্থানেই প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করে র্যা ব। সেখানে র্যা ব-৬-এর পরিচালক লে. কর্নেল মুহাম্মদ মোস্তাক আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, হত্যাকাণ্ডের পর থেকে র্যা ব ছায়া তদন্ত অব্যাহত রাখে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ফরিদপুর থেকে রিয়াজকে ও ফুলতলা থেকে সোহেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী যুগ্মিপাশার ওই ভবন থেকে মাথা উদ্ধার করা হয়। যে বঁটি দিয়ে মুসলিমাকে হত্যা করা হয়, তাও উদ্ধার করা হয়েছে।

র্যা ব পরিচালক জানান, হত্যাকাণ্ডের তিন দিন আগে রিয়াজের সঙ্গে মুসলিমার পরিচয় হয়। এর সূত্র ধরে মঙ্গলবার রাত ৮টা-৯টার দিকে রিয়াজ মেয়েটিকে তার বাড়িতে নিয়ে যায় এবং প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলা ও বিয়ের কথা বলে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ওই বাড়িতে উপস্থিত হয়ে সোহেলও তাকে ধর্ষণ করে। মুসলিমা বিষয়টি সবাইকে জানিয়ে দিতে পারে- এমন আশঙ্কায় রিয়াজ ও সোহেল তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। সে অনুযায়ী মুসলিমাকে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে বাইরে নির্জন রাস্তায় নিয়ে মুসলিমার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে। পরে মুসলিমার মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু তাতে ব্যর্থ হয়ে ধানক্ষেতে নিয়ে মুসলিমার মাথা কেটে ফেলে। পরে ওই মাথা যুগ্মিপাশার নির্মাণাধীন ওই বাড়ির টয়লেটে ফেলে দেয়। র্যা ব পরিচালক বলেন, আসামিরা পুরো বিষয়টি স্বীকার করেছে। তাদের ফুলতলা থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হবে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com