কলাপাড়ায় রাখাইন সম্প্রদায়ের শ্মশানের জমিতে ঘর উত্তোলন, ইউএনও’র কাছে অভিযোগ

প্রকাশ: ২২ মার্চ ২২ । ১৬:৩২ | আপডেট: ২২ মার্চ ২২ । ১৬:৩২

পটুয়াখালী ও কলাপাড়া প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌর শহর ও টিয়াখালী ইউনিয়নের সীমানায় নতুন পাড়া এলাকায় রাখাইন সম্প্রদায়ের শ্মশানের জমি দখল করে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী ঘর উত্তোলন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রাখাইন সম্প্রদায়ের লোকজন বাধা দিলেও তাতে কোনো কর্ণপাত করেননি দখলদার মোহাম্মদ রিপন। এ ঘটনায় কোকো মং রাখাইন মঙ্গলবার দুপুরে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। রিপন উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের গিলাতলা এলাকার বাসিন্দা। 

অভিযোগে জানা যায়, কলাপাড়া উপজেলার খেপুপাড়া মৌজার বিএস ৪৭ নম্বর খতিয়ানে ১৬২২ দাগের প্রায় ৩১ শতাংশ জমিতে রাখাইন সম্প্রদায়ের পুরানো শ্মশান এবং  অনেক মৃত রাখাইনের কবরস্থানও রয়েছে। মোহাম্মদ রিপন সকালে কাঠমিস্ত্রি এনে কাঠের ঘর তোলা শুরু করলে স্থানীয় রাখাইন সম্প্রদায়ের লোকজন এতে বাধা দেয়। কিন্তু রিপন রাখাইন সম্প্রদায়ের সকল বাধা উপেক্ষা করে জোরপূর্বক সেখানে ঘর তুলতে থাকেন। 

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মোহাম্মদ রিপন বলেন, ‘রাখাইনদের শ্মশানের জমিতে আমি ঘর উত্তোলন করছি না। ওখানে দুই পাশে দুটি ঘর আগে থেকেই রয়েছে। আমি মাঝখানের খালি জায়গায় ঘর উত্তোলন করছি। এটা রাখাইনদের জায়গা নয়, এটা সরকারি জায়গা। এ জায়গায় আমার ডিসিআর কাটা রয়েছে।’   

এ ব্যাপারে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসানাত মোহাম্মদ শহিদুল হক জানান, ওখানে লোক পাঠানো হয়েছে। খোঁজ-খবর নিয়ে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।    


© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com