কাবাডিতে উজ্জ্বল লাল-সবুজ

চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ : বাংলাদেশ ৩৪ :৩১ কেনিয়া

প্রকাশ: ২৫ মার্চ ২২ । ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সাখাওয়াত হোসেন জয়

কাবাডির ম্যাটে বিজয়ের বেশে উল্লাসে মাতেন তুহিন তরফদার-আরদুজ্জামান মুন্সিরা সংগৃহীত

এক মিনিটের মতো বাকি ম্যাচের। ৩২-৩১ পয়েন্টে এগিয়ে বাংলাদেশ। কেনিয়ার নাম্বার ওয়ান ও সেরা রেইডার ভিক্টর ওবিয়েরো পয়েন্ট আনার চেষ্টায়। বাংলাদেশের তিন খেলোয়াড়ের মধ্যে দু'জনকে স্পর্শ করে আনন্দে মেতে ওঠেন ভিক্টর। কিন্তু ব্যাকলাইন ক্রস করেছেন ভিক্টর এমন দাবি তোলেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।

দুই রেফারি আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেন ভিক্টর রং পজিশনে ছিলেন। উল্টো দুই পয়েন্ট যোগ হয় বাংলাদেশের। একটু পর রেফারির খেলা শেষের বাঁশি বাজতেই শিরোপা জয়ের আনন্দে-উদ্বেলিত লাল-সবুজের দলটি। সাউন্ড বক্সে বেজে ওঠে 'জয় বাংলা, বাংলার জয়' গানটি। গর্বের পতাকা হাতে নিয়ে কাবাডির ম্যাটে চারপাশে ঘুরতে থাকেন তুহিন তরফদার-আরদুজ্জামান মুন্সিরা।

শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়াম পরিণত হয় উৎসবের। বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডিতে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। গতকাল অনুষ্ঠিত ফাইনালে কেনিয়াকে দুটি লোনাহসহ ৩৪-৩১ পয়েন্টে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ট্রফি জিতল স্বাগতিকরা। বিপরীতে গতবারের মতো এবারও শিরোপার কাছে গিয়েও জিততে না পারার হতাশায় ভেঙে পড়ে পুরো কেনিয়া।

লড়াইটা বাংলাদেশের টেকনিক আর কেনিয়ার পাওয়ার। শারীরিক শক্তি এবং উচ্চতায় এগিয়ে থাকায় কেনিয়ার খেলোয়াড়দের আটকাতে গিয়ে বারবার খেই হারিয়ে ফেলেন তুহিন তরফদার-আরদুজ্জামান মুন্সিরা। আবার পয়েন্ট ছিনিয়ে আনতে গিয়ে রবিউল, জাকির, ফেরদৌসরা নিজেদের কোর্টে আসতে পারেননি প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত ডিফেন্সের কারণে। যে কারণে পাওয়ারফুল কেনিয়াকে থামানোর জন্য কৌশলে পরিবর্তন আনেন কোচ সাজুরাম। প্রতিপক্ষকে আটকানোর ঝুঁকিতে না গিয়ে পয়েন্ট আনায় মনোযোগ দেয় স্বাগতিকরা। তাতে সফলও হয়। এই অর্ধে কেনিয়াকে অলআউট করা বাংলাদেশ পায় প্রথম লোনা। ১৭-১৪ পয়েন্টে এগিয়ে থাকায় আত্মবিশ্বাসও বেড়ে যায়।

বিরতির পর শুরুতে ভুল করা বাংলাদেশ পয়েন্ট হারাতে থাকে। পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান রাজিব আহমেদ। একাই কেনিয়ার দুই প্লেয়ারকে আউট করে মূল্যবান দুই পয়েন্ট এনে দিলে জেগে ওঠে গ্যালারি। এটাই মূলত ম্যাচের অন্যতম টার্নিং পয়েন্ট। দারুণ খেলতে থাকা স্বাগতিকরা ব্যবধান নিয়ে যায় কেনিয়ার ধরাছোঁয়ার বাইওে (২৯-২১)। একে একে কেনিয়ার ওদিয়াম্বো, নামাবকে আউট করলে পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়ায় ৩০-২৩। এমন অবস্থায় বাংলাদেশের জয়টি সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছিল।

কিন্তু বারবার ভুল করেন তুহিন-মুন্সিরা। তাতে পয়েন্টের ব্যবধান কমিয়ে আনে কেনিয়া (৩২-৩১)। পেন্ডুলামের মতো ঘুরতে থাকা ম্যাচের শেষ নাটকটি ভিক্টরকে নিয়ে। তার ভুলেই দুই পয়েন্ট পায় বাংলাদেশ। গতবারের মতো এবারও সাজুরামের কোচিংয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশের এ ভারতীয় কোচ, 'ছেলেরা আজ (বৃহস্পতিবার) টুর্নামেন্টের সেরাটা খেলেছে। আমার পরিকল্পনা শতভাগ তারা বাস্তবায়ন করেছে।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com