এই শহরের গাড়িগুলোর চেহারা গরিব-গরিব: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ: ২৯ মার্চ ২২ । ১৬:২৯ | আপডেট: ২৯ মার্চ ২২ । ১৬:৪২

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর গণপরিবহনের বেহাল দশায় ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাসগুলোর ফিটনেস নেই। গাড়িগুলোর চেহারা গরিব-গরিব।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ বিশ্বের অর্থনৈতিকভাবে অগ্রসর ১১টি দেশের তালিকায় রয়েছে। সে বাংলাদেশের সঙ্গে এই ঢাকা মানায় না, একটুও মানায় না। বাসগুলো ভালো করতে চেষ্টা করছেন, আমি অনেক চেষ্টা করেছি। রঙচঙ করে বাস বের করে, ফিটনেস নেই। এই ছবির পরিবর্তন করতে হবে। এই শহরে গাড়িগুলোর যে চেহারা, গরিব-গরিব!’ 

‘শেখ হাসিনা বাংলাদেশের উন্নয়নকে যে উচ্চতায় নিয়ে গেছেন তার সঙ্গে তুলনা হয় না। সেটার সঙ্গে এই চিত্র মেলে না।’-আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন কাদের। 

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর  বনানীর হো‌টেল শেরাটনে ঢাকায় সাবওয়ে নির্মাণের সম্ভব্যতা সমীক্ষা শীর্ষক প্রকল্পের খসড়া চূড়ান্ত প্রতিবেদনের ওপর মতামত গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকাকে সবচেয়ে ‘অপরিকল্পিত শহর’ হিসেবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্ল্যান ছাড়াই এ শহর গড়ে উঠেছে। ভূমিকম্প, বড় ধরনের ঝড় উই আর ইন গ্রেট রিস্ক। স্বপ্নগুলো একজনই দেখেছেন, পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, কর্ণফুলী টানেল এই স্বপ্নগুলো দেখেছেন যিনি। এভাবে আর থাকতে চাই না। এই সাবওয়ের স্বপ্ন দেখেছেন শেখ হাসিনা। আমরা অত মাথায় নিইনি। বারবার উনি সড়কের কোনো প্রোগ্রাম হলে বলে ফেলতেন সাবওয়ে করা হবে। এই সিটির এখন যে অবস্থা, সাবওয়ে আমাদের করতেই হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। পদ্মা যে করতে পারে, সাবওয়েও সে করতে পারে। আড়াই কোটি লোক অলরেডি রয়ে গেছে। ঠাঁই নাই ঠাঁই নাই ছোট সে তরী। কোন অবস্থায় গিয়ে দেশ পতিত হবে।’

অনুষ্ঠানে দ‌ক্ষিণ সিটি কর‌পো‌রেশ‌নের মেয়র ব‌্যা‌রিস্টার ফজ‌লে নূর তাপস ব‌লেন, ‘সাবও‌য়ে নির্মাণ হ‌লে যেখান থে‌কে যে আয় হ‌বে, তার ভাগ সি‌টি কর‌পো‌রেশন‌কে দি‌তে হ‌বে।’ 

উত্ত‌রের মেয়র আ‌তিকুল ব‌লে‌ছেন, ‘ঢাকার উন্নয়‌নের দা‌য়ি‌ত্বে থাকা সংস্থারগু‌লোর সমন্ব‌য়ের অভাব র‌য়ে‌ছে। তার দূর না‌ হ‌লে উন্নয়ন ঠিকঠাক হ‌বে না।’ 


© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com