ধান ভানতে শিবের গীত

প্রকাশ: ০৫ এপ্রিল ২২ । ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আরিফুর রহমান

গত ৩০ মার্চ সমকালের সম্পাদকীয় পাতায় 'হরতালে মানুষ সাড়া দিল না কেন?' শিরোনামে সাংবাদিক মোস্তফা হোসেইনের একটি লেখা ছাপা হয়েছে। হরতাল বলতে লেখক ২৮ মার্চের হরতালের কথা বলেছেন। দেশব্যাপী আধাবেলার এ হরতালটি ডেকেছিল মূলত বাম গণতান্ত্রিক জোট। লেখক বলেছেন, হরতালটি তেমন জনসমর্থন পায়নি; কথাটার সঙ্গে আমার দ্বিমত নেই। কিন্তু আমার খটকা লেগেছে তখন, যখন লেখক এ জন্য দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপিকে দায়ী করেছেন। শুধু তাই নয়, তিনি লেখাটির কোথাও হরতাল আহ্বানকারী জোটটির নাম নেননি; পুরো লেখাজুড়ে বিএনপি ও তার শীর্ষ নেতা কোথায় কী অপরাধ করেছেন এবং এ জন্য জনগণ কীভাবে দলটিকে 'প্রত্যাখ্যান' করেছে। না, বিএনপি বা তার নেতাদের প্রতি আমার কোনো প্রীতি নেই, বা তাদের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এনেছেন তা-ও আমি উড়িয়ে দিচ্ছি না। আমার খটকার কারণটা হলো, এ বিষয়গুলো তিনি একেবারেই অপ্রাসঙ্গিকভাবে টেনে এনেছেন।

বাম জোট হরতালটা ডেকে বসে থাকেনি, তা সফল করার জন্য প্রায় এক মাস প্রচারণাও চালিয়েছিল। ওই প্রচারণা চালাতে গিয়ে এমনকি জোটের নেতাকর্মী অনেকে পুলিশ ও সরকারি দলের ঠ্যাঙাড়ে বাহিনীর হাতে মারও খেয়েছেন। এসব প্রসঙ্গ না আনুন, তিনি অন্তত কী কারণে জনগণ বামদের হরতাল পালন করল না, তা বলতে পারতেন। জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে বামদের কী করা উচিত সে ব্যাপারেও কিছু বলতে পারতেন। কিন্তু তিনি এসবের ধারে-কাছে না গিয়ে চলে গেলেন বিএনপিবিষয়ক আলোচনায়। এতে যা দাঁড়াল, হরতালটি যদি কোনো এলাকায় আংশিকও সফল হয়ে থাকে, তাহলে তার পুরো কৃতিত্বটি চলে যাবে বিএনপির পকেটে! অথচ এ হরতালের সঙ্গে বিএনপির আসলেই কোনো যোগ ছিল না। বিএনপি হরতালটিকে 'নৈতিক' সমর্থন দিয়েছিল। আবার বাম জোটের নেতারা তা প্রত্যাখ্যানও করেছিল। কারণ তারা বহুদিন ধরেই দেশের প্রধান দুই দল থেকে সমদূরত্ব বজায় রাখায় বিশ্বাসী।

মোদ্দা কথা, ২৮ মার্চের হরতাল সমর্থন করার জন্য বিএনপির কোনো দায় ছিল না। যাহোক, এভাবে ধান ভানতে গিয়ে শিবের গীত গেয়ে লেখক কাউকে খুশি করতে চেয়েছেন কিনা জানি না। তবে এটা বলতে পারি, এতে তিনি একদিকে বাম গণতান্ত্রিক জোটকে অন্যায়ভাবে উপেক্ষা করেছেন এবং বিএনপিকে ভুলভাবে আঘাত করে মানুষের মধ্যে কিছুটা হলেও সমবেদনা জাগিয়ে দিয়েছেন।

ধানমন্ডি, ঢাকা

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com