আন্তর্জাতিক আইকিউ অলিম্পিয়াডে বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ

প্রকাশ: ০৮ এপ্রিল ২২ । ১৪:৫৬ | আপডেট: ০৮ এপ্রিল ২২ । ১৯:১৮

সমকাল প্রতিবেদক

আন্তর্জাতিক আইকিউ অলিম্পিয়াডে বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করেছে ব্রেনেক্স। শুক্রবার সকালে দৈনিক সমকালের সভাকক্ষে এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তাদের মেডেল ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ খান। সভাপতিত্ব করেন ব্রেনেক্সের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন পিন্টু। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আইকিউ অলিম্পিয়াডের স্বপ্নদ্রষ্টা মশিউর রহমান, সমকালের সহকারী সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম আবেদ, ব্রেনেক্সের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আব্দুস সাত্তার, ডিরেক্টর ওয়াহিদুজ্জামান, তরিকুল ইসলাম ও নিরঞ্জনা বৈশাখী।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক আবু সাঈদ খান বলেন, আজকে যারা এখানে বিজয়ী হিসেবে পুরস্কার নিতে এসেছে তারা তাদের মেধার কারণে তাদের অভিভাবকদের এ মঞ্চে নিয়ে এসেছে। এই শিশুরাই আগামী দিনে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এ শিশুদের মধ্যে আগামী দিনের জগদীশ চন্দ্র বসু, সত্যেন্দ্রনাথ বসু লুকিয়ে আছে।

আন্তর্জাতিক আইকিউ অলিম্পিয়াডে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন দৈনিক সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ খান - সমকাল

তিনি বলেন, একাত্তরের প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে। কিন্তু আগামী দিনের মুক্তিযোদ্ধা হচ্ছে এ কিশোর-কিশোরী এই শিশুরা। তারা নতুন প্রজন্মের মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তবুদ্ধিযোদ্ধা। আমরা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছি, কিন্তু এখন দরকার হচ্ছে মুক্তবুদ্ধিচর্চা। মুক্তবুদ্ধিচর্চার মাধ্যমে আমাদের দেশকে আলোকিত করতে হবে। শিশু-কিশোররা আলোর মিছিল নিয়ে গেলে দেশের ভেতরে ভুতপেত্নী যারা মানুষকে ভয় দেখায় তারা পালিয়ে যাবে। সাম্প্রদায়িক শক্তি পেছনে হটে যাবে। অশিক্ষা, কুসংস্কার, অন্ধকার, ধর্মীয় গোঁড়ামি এসব কিছু দূর হয়ে যাবে।

আবু সাঈদ খান বলেন, এই আলোর মশালগুলোকে আমাদের লালন করতে হবে। এদেরকে আরও আলোকিত হওয়ার সুযোগ দিতে হবে। এ দায়িত্ব হচ্ছে অভিভাবকদের, সমাজের, রাষ্ট্রের- আমাদের সকলের। সবাইকে দায়িত্ব নিতে হবে। আমরা যে কাজই করি না কেন দেশটা কিন্তু আমাদের। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে আমরা কলম ছেড়ে যুদ্ধ করেছি। এই প্রজন্মকে অস্ত্র নয়, কলম দিয়ে যুদ্ধ করতে হবে। দেশটাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আমরা যে পতাকা নিয়ে এসেছি এই প্রজন্ম সেটা বিশ্বদরবারে আরও উপরে তুলে ধরবে। আমাদের সন্তানেরা জাতীয় ক্রিকেট ও ফুটবলসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় কৃতিত্ব ও সম্মান বয়ে এনেছে। মেয়েরাও সমান কৃতিত্ব দেখাচ্ছে। জ্ঞান চর্চার বিভিন্ন পর্যায়ে রসায়ন, জীববিজ্ঞান, পদার্থ, গণিতে এবং আইকিউয়ে সাফল্য বয়ে আনছে।

সভাপতির বক্তব্যে মোশারফ হোসেন পিন্টু বলেন, আজকে যারা এখানে আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছে এই ছোট সোনামনিদের হাত ধরে এগিয়ে যাবে দেশ। তারাই একদিন দেশকে নেতৃত্ব দেবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন দৈনিক সমকালের উপদেষ্টা সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ খান - সমকাল

বাংলাদেশ আইকিউ অলিম্পিয়াডের স্বপ্নদ্রষ্টা মশিউর রহমান বলেন, সারাদেশে এ শিশু-কিশোরদের মধ্যে অনেক প্রতিভা লুকিয়ে আছে। এ প্রতিভা বের করে আনার জন্য বাংলাদেশ আইকিউ অলিম্পিয়াডের আয়োজন করে ব্রেনেক্স। আঞ্চলিক পর্যায়ের প্রতিযোগিতার পর জাতীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতা হয়। এখান থেকে এই মেধাবী শিশু-কিশোরদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডের জন্য প্রস্তুত করে তোলা হয়। মেধাবী শিশু-কিশোররা তাদের এই মেধার স্বাক্ষর রেখেই চলেছেন। আগামী এ ধরনের কার্যক্রম আরও বাড়ানো হবে।

প্রতিবছর ভারতের রাজধানী দিল্লীতে কম্পিউটিশন প্রমোশন সোসাইটির আয়োজনে আন্তর্জাতিক আইকিউ অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপমহাদেশের সব দেশ সহ আরব আমিরাত, কানাডার ৩৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। এতে বাংলাদেশ থেকে ২০২০ সালে ৯ জন এবং ২০২১ সালে ২৮ জন প্রতিযোগী গোল্ড, সিলভার, ব্রোঞ্জ পদক পায়।

আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডের জন্য সারাদেশ থেকে শিক্ষার্থীদের বাছাই করে প্রশিক্ষণ ও রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করে ব্রেনেক্স। আয়োজক সংস্থাটি দেশে ন্যাশন্যাল আইকিউ অলিম্পিয়াডের আয়োজন করে। এতে আঞ্চলিক পর্যায়ে বিজয়ীরা জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণ করে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com