পঁচাত্তরের পর ক্ষমতাসীনরা মুক্তিযুদ্ধের বিজয় ধ্বংস করতে চেয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ: ২৬ এপ্রিল ২২ । ১৬:২৬ | আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২২ । ১৬:২৬

অনলাইন ডেস্ক

পঁচাত্তরের পনের আগস্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর যারা বাংলাদেশে রাষ্ট্রক্ষমতায় এসেছে, তারা মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও বিজয়কে ধ্বংস করে দিয়ে জনগণকে কেবল শোষণ করে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বঙ্গবন্ধুর শাসনমালের অর্জন পঁচাত্তরের পনের আগস্টের পর আর ধরে রাখা যায়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘তারা মুক্তিযুদ্ধের বিজয়টাকে ধ্বংস, আদর্শটাকে করতে চেয়েছিল। আবার যেন এ দেশ পাকিস্তানিদের পদলেহন করে এটাই বোধহয় তাদের লক্ষ্য ছিল।’

মঙ্গলবার সকালে ‘ঈদ উপহার’ হিসাবে প্রায় ৩৩ হাজার পরিবারকে নতুন ঘর তুলে দেওয়ার অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে তৃতীয় পর্যায়ে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সংযুক্ত হন।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমালোচনায় তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে খুনি, যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষমতায় বসিয়েছেন। যে আদর্শ নিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল সেই আদর্শ থেকে বাংলাদেশ পথ হারিয়ে ফেলে। একের পর এক ক্ষমতায় এসে তারা জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন, জনগণকে অধিকার বঞ্চিত করেছেন। নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে চেয়েছে তারা। 

জিয়াউর রহমানের শাসনামলের সমালোচনায় তিনি বলেন, তারা এদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারে নাই। স্বাধীন দেশ বাংলাদেশকে তারা আবার পাকিস্তানি গোলামি জিঞ্জিরে আবদ্ধ করতে চেয়েছিল।

শেখ হাসিনা বলেন, জিয়াউর রহমান নিজেকে ক্ষমতাসীন করার পাশাপাশি সংবিধানের ধারা বদলে দিয়ে জামায়াতে ইসলামীকে বাংলাদেশে রাজনীতি করার সুযোগ করে দেন। বঙ্গবন্ধুর শাসনমালে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে যাদের বিচার শুরু হয়েছিল, তাদের বিচারের হাত থেকে রক্ষা করে দেওয়া হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করা না হলে বাংলাদেশ ৪০ বছর আগেই উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে বিশ্ব দরবারে মর্যাদা পেত।






 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com