সীমান্তে বিএসএফ রয়েছে বলেই আমরা নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারি: অমিত শাহ

প্রকাশ: ০৫ মে ২২ । ১৯:১০ | আপডেট: ০৬ মে ২২ । ০১:৪১

কলকাতা সংবাদদাতা

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, সীমান্তে বিএসএফ রয়েছে বলেই আমরা নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারি।

বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গে দুই দিনের সফরে এসে বিএসএফের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

৮৫ নম্বর বিএসএফ ব্যাটেলিয়ানের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে অমিত শাহ বলেন, দেশের সুরক্ষার বিএসএফ জওয়ানরাই করতে পারে। সীমান্তে বিএসএফ রয়েছে বলেই আমরা নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারি। ভারত মানবাধিকারের বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেয়। 

তিনি আরও বলেন, দেশের সীমান্তে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয়দের মানবাধিকার রক্ষা করে চলেছে। সত্তরের দশকে মুক্তিযুদ্ধের সময় যখন শরণার্থীর ঢল নেমেছিল বঙ্গে, সেই সময়ও ভারতীয় সেনা সদস্যরা বাংলাদেশকে মুক্ত করে সে দেশের মানুষদের মানবাধিকার রক্ষা করেছে।

আমিত শাহ বলেন, আমি জানি যে সব সেনাসদস্যরা সীমান্ত এলাকায় পাহারার দায়িত্বে রয়েছেন তাদের কাজ কতটা কঠিন, আপনাদের সব সময় সতর্ক থাকতে হয়। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রবেশের সমস্যা রয়েছে। কৌশল বদল করছে অনুপ্রবেশকারীরা। অনুপ্রবেশকারীদের রোখাই বড় চ্যালেঞ্জ। অনুপ্রবেশকারীদের রুখতে টহলদারি জোর দিতে হবে।

এর আগে সকালে বিশেষ বিমানে দমদম বিমানবন্দরে পৌঁছান শাহ। সেখান থেকে হেলিকপ্টারে যান হিঙ্গলগঞ্জে। 

জলপথে চোরাচালান বন্ধ করতে হিঙ্গলগঞ্জে ইছামতী নদীর ওপর ছয়টি ভাসমান সীমান্ত চৌকি বানিয়েছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী। সেগুলোর উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর পর হেলিকপ্টারে বনগাঁর হরিদাসপুরে যান অমিত শাহ। সেখানেই বিএসএফের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন তিনি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর উপলক্ষে হরিদাসপুর ক্যাম্পে মৈত্রী সংগ্রহশালা ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

এদিকে অমিত শাহের পশ্চিমবঙ্গে আসা প্রসঙ্গে কংগ্রেসের সংসদ সদস্য অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেন, অমিত শাহ বাংলায় এসে ফের এনআরসি ও সিএএ নিয়ে কথা বলবেন। বাংলায় এসে অমিত শাহ বলবেন, আমরা নাগরিক আইন চালু করব, আইন তৈরি হচ্ছে, কিছুদিনের মধ্যেই আইন তৈরি হয়ে যাবে, আমরা কথা দিচ্ছি, বিজেপি যা বলে সেখান থেকে সরে না। যদি অমিত শাহের এ বক্তব্যগুলো না থাকে তাহলে আমার কান কেটে দেবেন।

পশ্চিমবঙ্গ সফরের দ্বিতীয় দিন নানা কর্মসূচিতে অংশ নেবেনে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com