জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ ২ ভাইয়ের মৃত্যু

প্রকাশ: ১২ মে ২২ । ২২:৫৬ | আপডেট: ১২ মে ২২ । ২২:৫৬

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নিহত দুই সহোদর শামীম ও নাজমুল

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জেনারেটর বিস্ফোরণে দগ্ধ দুই ভাই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তারা আড়াইহাজার পৌরসভার চামুরকান্দি চৌরাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা।

গত রোববার বিস্ফোরণে দগ্ধ হওয়ার পর তাদের রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে নাজমুল মিয়ার মৃত্যু হয়। আর বৃহস্পতিবার সকালে মারা যান তার বড় ভাই শামীম মিয়া।

রূপগঞ্জের কর্ণগোপ এলাকায় ফ্রেশ স্টিল অ্যান্ড রি-রোলিং মিলে বিদ্যুতের লাইন স্পার্ক করে জেনারেটর বিস্ফোরিত হলে ওই দুই ভাইয়ের পাশাপাশি বাসার নামে আরও একজন দগ্ধ হন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢাকায় পাঠানো হয়।

শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. আইউব হোসেন বলেন, নাজমুল মিয়ার শরীরের ৬১ শতাংশ ও শামীম মিয়ার ৪৮ শতাংশ দগ্ধ ছিল। তাদের দু'জনের শরীরে ইলেকট্রিক বার ছিল। অপর শ্রমিক বাসার এখনও আশঙ্কামুক্ত নন বলে এই চিকিৎসক জানান।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মরদেহ গ্রামের বাড়ি পৌঁছালে তাদের একনজর দেখতে ভিড় জমান এলাকাবাসী। বাড়ি ও পাশের রাস্তায় ছিল নারী-পুরুষের ভিড়। শোকার্ত ওই পরিবারকে সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা হারিয়ে ফেলেন উপস্থিত লোকজন। পরিবারের লোকজন ও স্বজনদের আহাজারিতে ভারি হয়ে ওঠে আশপাশের পরিবেশ।

নিহতদের চাচা সৌরভ মিয়া জানান, ওই রি-রোলিং মিলে গত পাঁচ বছর ধরে ইলেকট্রিক শাখায় তারা কাজ করতেন। স্বামী হারিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন শামীমের স্ত্রী রুনা আক্তার। তার একমাত্র সন্তান আবদুল্লাহ এখনও জানে না তার বাবা নেই। রুনা জানান, রোববার ভোরে প্রতিদিনের মতো চার বছরের ঘুমন্ত শিশু সন্তান আবদুল্লাহর গালে চুমু খেয়ে শামীম তার ভাইকে নিয়ে কাজে যোগদানের জন্য বেরিয়ে পড়েন। কে জানত এই চুমুই হবে শেষ চুমু।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com