জেলায় জেলায় বিএনপির সমাবেশ

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাধ্য করা হবে

প্রকাশ: ১৫ মে ২২ । ০০:০০ | আপডেট: ১৫ মে ২২ । ০৩:০৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

সমকাল ডেস্ক

চট্টগ্রাম মহানগর দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবন চত্বরে শনিবার বিএনপি নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করেন- সমকাল

'দেশব্যাপী আওয়ামী সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে' গতকাল শনিবার জেলায় জেলায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বিএনপি। এর মধ্যে নাটোর, নড়াইল ও চট্টগ্রামে কর্মসূচি পুলিশের বাধার মুখে পড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা। নাটোরে আওয়ামী লীগ কর্মীদের হামলায় দুই ছাত্রদল নেতা আহত হয়েছেন।

গতকালের কর্মসূচিতে বিএনপি নেতারা বলেছেন, তাদের দল ভোটের মাঠে থাকবে; চোরের মাঠে থাকবে না। দেশে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে বিএনপি ৮০ ভাগ আসন পাবে। আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটিয়ে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে ক্ষমতায় আনা হবে। মামলা দিয়ে নেতাকর্মীদের ঘরে রাখা যাবে না। নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে এ সরকারকে বাধ্য করা হবে। একই সঙ্গে আগামী দিনে রাজপথে ঐক্যবদ্ধ থেকে আন্দোলন করার জন্য নেতাকর্মীদের আহ্বান জানানো হয় কর্মসূচি থেকে।

যশোরে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দলটির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনকি সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত।

বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিমের বাসভবনের সামনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব। পঞ্চগড় জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে বক্তব্য দেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরউদ্দীন সরকার।

ঢাকা জেলা বিএনপির উদ্যোগে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন দলটির ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন। এ সময় তিনি বলেন, হালুয়া-রুটির বেইমানদের বিএনপিতে জায়গা হবে না। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপি সভাপতি ডা. দেওয়ান সালাউদ্দিন বাবু; সভা সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক। বক্তব্য দেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ বিএনপি সভাপতি নিপুণ রায় চৌধুরী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য কফিল উদ্দিন প্রমুখ।

বগুড়ায় কর্মসূচিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, রাজশাহীতে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, খুলনায় স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, বরিশালে দলের ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমদ, মেহেরপুরে দলের পল্লি উন্নয়ন সম্পাদক গৌতম চক্রবর্তী, খাগড়াছড়িতে দলের যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল এবং নারায়ণগঞ্জে ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বক্তব্য দেন।

এ ছাড়া পিরোজপুর, মৌলভীবাজার, লক্ষ্মীপুর, হবিগঞ্জ, নোয়াখালী, পটুয়াখালী, রাজবাড়ী, ঝিনাইদহ, শরীয়তপুর, নেত্রকোনা এবং সুনামগঞ্জে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে।

পুলিশের বাধা, আহত ২: নাটোরে পুলিশের বাধায় বিএনপির সংক্ষিপ্ত সমাবেশ হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। এ ছাড়া সমাবেশ থেকে ফেরার পথে আওয়ামী লীগ কর্মীদের হামলায় সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক আনাম আহম্মেদ ও তেবাড়িয়ায় যুগ্ম আহ্বায়ক শরিফুল ইসলাম সুমন আহত হন। অপরদিকে, 'বিএনপির নৈরাজ্যের প্রতিবাদে' যুবলীগ বিক্ষোভ মিছিল ও ছাত্রলীগ মোটরসাইকেল র‌্যালি করে। নড়াইল জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বলেন, পুলিশি বাধায় আমরা কার্যালয়ে ঢুকতে পারিনি। পরে আমার বাসভবনে অবস্থান করি।

চট্টগ্রাম নগরীর নাসিমন ভবনে দলীয় কার্যালয় চত্বরে সমাবেশ করে মহানগর বিএনপি। কর্মসূচিতে মিছিল করে অংশ নেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয় বলে অভিযোগ করেন নেতাকর্মীরা। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। সভাপতিত্ব করেন মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ান।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com