নোয়াখালীতে জামায়াতের ৪৫ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ১৫ মে ২২ । ২৩:০০ | আপডেট: ১৫ মে ২২ । ২৩:০০

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীতে অভিযান চালিয়ে জামায়াতে ইসলামীর ৪৫ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার জেলা শহর মাইজদীর আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তারা গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

এ ঘটনায় সুধারাম থানা পুলিশ বাদী হয়ে জেলা জামায়াতের সভাপতি, সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ১০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সুধারাম মডেল থানার উপপুলিশ পরিদর্শক সুজন বিকাশ চাকমা। সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার শহীদুল ইসলাম জানান, দুপুর ১২টার দিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলার জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীরা সুধারাম থানা এলাকার মাইজদী আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলায় সরকারবিরোধী গোপন বৈঠক করার জন্য একত্র হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আকরামুল হাসান ও সুধারাম থানার ওসি আনোয়ারুল সেখানে অভিযান চালিয়ে ৪৫ জামায়াতে ইসলামী নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে।

এ সময় গ্রেপ্তারদের কাছ থেকে ধর্মীয় উগ্রতা সৃষ্টিকারী বিভিন্ন ধরনের বই উদ্ধার করা হয়। এসপি বলেন, গ্রেপ্তাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, কেন্দ্রীয় জামায়াতের নির্দেশে সরকারকে উৎখাতের লক্ষ্যে আসামিরা অন্তর্ঘাতমূলক কর্মকাণ্ড করার পরিকল্পনা প্রণয়নে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর ও কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন নেতাকর্মীকে নিয়ে এ গোপন বৈঠকে মিলত হন।

এ ব্যাপারে কথা বলতে নোয়াখালী জেলা জামায়াতের আমির ইসহাক খন্দকারকে মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও রিসিভ করেননি।

সুধারাম মডেল থানার ওসি বলেন, এসআই সুজন বিকাশ চাকমা বাদী হয়ে জেলা জামায়াতের আমির, সেক্রেটারিসহ ১০০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আটক ৪৫ নেতাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়।

নোয়াখালী কোর্ট পরিদর্শক-১ শাহ আলম বলেন, শুনানি শেষে আদালত আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com