চট্টগ্রামে দুদকের এনআইডি জালিয়াতি মামলার আসামির জামিন

প্রকাশ: ২৭ জুন ২২ । ১৯:৪৫ | আপডেট: ২৭ জুন ২২ । ২০:০৩

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামে রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সরবরাহে জালিয়াতির ঘটনায় দুদকের দায়ের করা মানি লন্ডারিং মামলার আসামি আনিছুর নাহার বেগম জামিন পেয়েছেন। সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ ড. বেগম জেবুনেচ্ছার আদালত এ আদেশ দেন।

আসামি নাহার বেগম এ মামলার প্রধান আসামি জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী।

দুদক পিপি মাহমুদুল হক মাহমুদ বলেন, উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত নারী আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- চট্টগ্রাম ডবলমুরিং থানার নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহায়ক জয়নাল আবেদীন, দালাল জাফর, সহযোগী বিজয় দাস ও তার বোন সীমা দাস ওরফে সুমাইয়া আকতার, ইসি ঢাকা কার্যালয়ের অফিস সহকারী সত্য সুন্দর দে, বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ের ডাটা অ্যান্ট্রি অপারেটর নিরুপন কান্তি নাথ ও জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের অস্থায়ী অফিস সহায়ক ঋষিকেশ দাশ। এ মামলার সব আসামি এখন জামিনে রয়েছেন।

দুদক সূত্রে জানা যায়, জয়নাল একজন সরকারি কর্মচারী। নগরীর চকবাজারের ইসলামী ব্যাংকের একটি শাখায় তার নামে থাকা হিসাবে ১১ মাসে জমা হয় ৩৫ লাখ টাকা। তার স্ত্রী আনিছুন নাহার বেগম দালাল জাফরসহ অন্যদের সহায়তায় স্বামীর হিসাব নম্বরে সাড়ে ২১ লাখ টাকা জমা করেন। বাকি টাকা দালালেরা জমা করেন। পরস্পর যোগসাজশে জয়নালসহ আসামিরা মোট ৬৭ লাখ ৮৩ হাজার টাকা হস্তান্তর, স্থানান্তর ও বাড়ি নির্মাণে ব্যয় করায় অর্থ পাচার আইনে মামলাটি হয়েছে।

২০১৯ সালের ২২ আগস্ট লাকী নামের এক নারী চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে এনআইডির স্মার্ট কার্ড তুলতে গেলে কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে ওই নারী রোহিঙ্গা এবং টাকা দিয়ে তিনি এনআইডি করিয়েছেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com