ফরিদপুরে তিন দিনে করোনা শনাক্তে হার ৩৩ শতাংশ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২২ । ১৫:২৩ | আপডেট: ০৪ জুলাই ২২ । ১৫:২৩

ফরিদপুর অফিস

সারাদেশের মতো ফরিদপুরেও আবার বাড়ছে করোনার সংক্রমণের হার । গত তিন দিনে পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার গড়ে ৩৩ শতাংশ । তবুও জনগুরুত্বপূর্ণ ব্যাংকিং খাতসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি।

এই মহামারির হাত থেকে রক্ষা পেতে রোববার থেকে সরকারিভাবে ব্যাংকিং সেক্টরে প্রজ্ঞাপন জারি করে সেবা দাতা ও গ্রহীতার উভয়েরই মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করার ।

কিন্তু ফরিদপুরে বিভিন্ন ব্যাংকে গিয়ে দেখা যায়, সেখানকার গ্রাহক নয় শুধু সরকারি বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অনেকেই মাস্ক ব্যবহার করছেন না।

তবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপকরা বলছেন, মাস্ক ব্যবহারের প্রজ্ঞাপনের পরেই প্রত্যেক শাখায় গ্রাহকদের অনুরোধ করা হচ্ছে মাস্ক পড়তে। তাদের দাবি, ব্যাংক গুলোর কর্মকর্তা কর্মচারিদের বাধ্যতামূলক করা হয়েছে এই প্রজ্ঞাপন মেনে চলতে । এ জন্য ব্যাংকের পক্ষ থেকে মাস্কসহ স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হচ্ছে ।
 
ফরিদপুর প্রিমিয়ার ব্যাংকের ব্যবস্থাপক মনিরুজ্জামান শামিম বলেন, বেশ কিছু দিন পর আবার করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় আমরা গ্রাহকদের মাস্ক ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করছি। আমাদের কর্মকর্তা কর্মচারিরা সবাই শত ভাগ স্বাস্থ্য বিধি যাতে মেনে চলে সেই নিদের্শনা দেওয়া হয়েছে। গ্রাহকরা যাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে এজন্য আমাদের সবাইকে আরো সচেতন ও আন্তরিক হতে হবে।

ফরিদপুর শহরের ঝিলটুলি এলাকায় সোনালী ব্যাংকে প্রধান শাখায় টাকা তুলতে আসা হাবিবুর রহমানকে মাস্ক না পড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনেকদিন করোনা ছিলো না, তাই অভ্যাস হয়ে গেছে মাস্ক ছাড়া চলতে। যেহেতু আবার বেড়েছে তাই মাস্ক অবশ্যই পড়তে হবে।

ফরিদপুর ওয়ান ব্যাংকের সহকারি ব্যবস্থাপক সাহদাত আল মামুন মাক্সের বিষয়ে বলেন, সরকারি প্রজ্ঞাপন আমরা পেয়েছি, গ্রাহকদের স্বাস্থ্য সচেতনের বিষয়ে তৎপর রয়েছি আমরা।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, শুধু আর্থিক খাত নয়, সরকারি বেসরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত  সকল পর্যায়ের সেবা দাতা ও গ্রহীতার কঠোর ভাবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য সরকার নির্দেশ দিয়েছে। এর ব্যত্যয় ঘটলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যও বলা হয়েছে। তবে আমরা স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির উপর জোর দিচ্ছি যাতে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করে একযোগে এই মহামারিকে মোকাবেলা করতে পারি ।

ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমদের পিসি আর ল্যাবে গত ২ জুলাই ১০টি নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ছয়টি করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। ৩ জুলাই ৪৯টি নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ১১টি করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে এবং ৪ জুলাই ৬৫ নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ১৮টি করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে।
তিনি বলেন, গত এক সপ্তাহ যাবত পরীক্ষার ও সংক্রমনের হার উদ্ধমূর্খী


© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com