নারী নির্যাতনে নতুন ধরন, পুরোনো আইনে বিচার নিয়ে সংশয়

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২২ । ২০:২৫ | আপডেট: ১০ আগস্ট ২২ । ২০:২৫

সমকাল প্রতিবেদক

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন।

গণপরিবহনে অব্যাহতভাবে ধর্ষণের ঘটনা ও নারীর নিরাপত্তাহীনতা বেড়েই চলেছে। নারী নির্যাতনের নানা নতুন ধরন যুক্ত হচ্ছে, এমতাবস্থায় পুরোনো আইন দিয়ে নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনার বিচারের কাজ পরিচালনা করা যাবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে নারী নেতৃবৃন্দ। 

আজ বুধবার রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে 'নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদ ও প্রতিকারের দাবিতে' ৬৬টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠনের প্ল্যাটফর্ম সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধনে এই সংশয় প্রকাশ করা হয়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, ধর্ষণের যে কলঙ্ক তা কে বহন করবে? এ সময় তিনি গণপরিবহনে ধর্ষণের ঘটনা প্রতিহত করতে গণপরিবহন মালিক, গণপরিবহন শ্রমিক ও গণপরিবহনমন্ত্রী-সহ সকলকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সকলকে নিজ নিজ দায়বদ্ধতা থেকে জোরালোভাবে কাজ করতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, নারী কোথাও নিরাপদ নয়, নারীকে কেউ নিরাপত্তা দেবে না, তার নিজেকেই নিরাপত্তা আদায় করতে হবে। সকল ধরনের ধর্ষণের ঘটনা প্রতিহত করতে সামাজিক আন্দোলনকে জোরদার করতে হবে।

বক্তারা প্রতিনিয়ত গণপরিবহনে নারীর প্রতি সংঘটিত ধর্ষণের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিষয়টি খুবই পুরোনো এবং প্রায়ই ঘটছে। এসব ঘটনার বিচারে দীর্ঘসূত্রিতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিরোধে শূন্য সহিষ্ণুতা নীতির কথা বলা হলেও এর বাস্তবিক প্রয়োগ নেই। ফলে একটি ঘটনার রেশ না কাটতেই পুনরায় আরও অসংখ্য ঘটনা ঘটছে। বক্তারা এ সময় গণপরিবহনে নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে প্রতিটি ঘটনার মামলার বিচারকাজ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করা, টহলরত পুলিশ প্রশাসনের দায়িত্বে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা, যারা সড়কপথে আছে তাদের আচরণগত পরিবর্তনের জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া, প্রকৃত অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা এবং ঘটনা প্রতিহত করতে সরকারের নীতি নির্ধারণী পর্যায় থেকে শুরু করে পুলিশ প্রশাসনের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার সুপারিশ তুলে ধরেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন গণস্বাক্ষরতা অভিযানের শামসুন্নাহার পলি, ওয়াইডব্লিউসিএ অব বাংলাদেশের কো-অর্ডিনেটর বিনা অধিকারী, অ্যাকশন এইড-এর নুরুন্নাহার, বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির সদস্য দিলশাত আরা, ব্লাষ্টের শাহরিয়ার হোসেন, বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের উপপরিচালক শাহনাজ সুমী, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের আন্দোলন সম্পাদক রাবেয়া খাতুন শান্তি, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের আইনজীবী রুমা সুলতানা ও বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের ভাইসপ্রেসিডেন্ট ফেকুলাল ঘোষ কমল। এছাড়াও সংহতি প্রকাশ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মোবারক হোসেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com