প্রিমিয়ার লিগের নজরে তরুণ আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার

প্রকাশ: ৩০ সেপ্টেম্বর ২২ । ১২:১৯ | আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২২ । ১২:১৯

স্পোর্টস ডেস্ক

মেক্সিমো পেরোনে। ছবি: ফাইল

সার্জিও আগুয়েরো-মাশ্চেরানো অবসরে গেছেন। লিওনেল মেসি শেষ বিশ্বকাপের সামনে দাঁড়িয়ে। কাতার বিশ্বকাপের পরে নতুন প্রজেক্ট শুরু করতে হবে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের। ওই প্রজেক্টের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হতে পারেন মিডফিল্ডার থিয়গো আলমাদা () এবং মেক্সিমো পেরোনে (১৯)।

যুক্তরাষ্ট্রের লিগে খেলা আর্জেন্টিনার ২১ বছর বয়সী আলমাদা জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন। অভিষেকও হয়ে গেছে। পেরোমে খেলেন আর্জেন্টিনার ক্লাবে। তবে তার প্রতি নজর পড়েছে প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ পর্যায়ের ক্লাবের। ম্যানচেস্টার সিটি তার খোঁজ খবর রাখছে। উলভস তাকে কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছে।

এই পেরোনেকে আবিষ্কার করেছিলেন ভ্যালেজ সারসফিল্ড কোচ গ্যাব্রিয়েল হেইনজ। ২০২০ সালে তাকে নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন, ‘একাডেমিতে একটা ছেলে আছে, যে অসাধারণ। তবে তাকে এখন আমি খেলাতে চাই না। কারণ এখনও সে অনেক ছোট। যদিও তাকে না খেলানো কঠিন সিদ্ধান্ত।’

হেইনজ ভ্যালেজে থাকলে হয়তো পেরোনের ক্লাব অভিষেক হতে ১৯ বছর লেগে যেত না। তবুও চলতি বছর আর্জেন্টিনার প্রিমেইরা ডিভিশনে ১৯ ম্যাচ খেলে দুই গোল করেছেন তিনি। লিবার্তোদোসে ১০ ম্যাচে এক গোল। গোল দিয়ে একজন মিডফিল্ডারের সবটা বোঝা যায় না। যদিও শুরুও ভালো হয়নি তার। তবে আস্তে আস্তে প্রত্যাশা মিটিয়ে গেছেন।

তাকে তুলনা করা হচ্ছে বার্সেলোনার মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি জং এবং রিয়াল মাদ্রিদের ফেদে ভালভার্দের সঙ্গে। যিনি খেলেন ডিপ মিডফিল্ডে কিন্তু ফাইনাল থার্ডে যার ভূমিকা থাকে চোখে পড়ার মতো। তাকে রিয়ালের আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার ফার্নান্দো রেদনদোর সঙ্গে তুলনাও করা হয়েছে। তবে তুলনা দিয়ে তো পেট চলে না। ইউরোপে যেতে হলে সেরাটা দেখিয়েই তাকে যেতে হবে। তার সঙ্গে ক্লাবের চুক্তি আছে ২০২৩ সাল পর্যন্ত। রিলিজ ক্লজ ১০ মিলিয়ন ইউরো।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২৩

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com