আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর দেওয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশ: ০৩ অক্টোবর ২২ । ২০:৫৩ | আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২২ । ২০:৫৫

গুরুদাসপুর (নাটোর) সংবাদদাতা

আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর। ফাইল ছবি

নাটোরের গুরুদাসপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ দেওয়ার কথা বলে হতদরিদ্র জমেলা বেগমের (৪০) কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) দুই সদস্যের বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী ওই নারী উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের মিল্কি ধানুড়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের মেয়ে।

জমেলা বেগম বলেন, আমার স্বামী পেশায় ভ্যানচালক। বিয়ের পর দীর্ঘ ২০ বছর ধরে আমার বাবার বাড়িতেই আমরা বসবাস করছি। আমাদের কোন জায়গা জমি নেই। বাবার বাড়িতে ছোট একটি কুড়ে ঘরে বসবাস করছি। আশ্রয়ণ প্রকল্পে ভূমিহীনদের ঘর বরাদ্দ দেওয়ার কথা শুনে এক বছর আগে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার আব্দুল হান্নান ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আইয়ুব আলীর কাছে যাই। তারা দুই জন তখন আমার কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। তখন আমি বিভিন্ন জায়গা থেকে ঋণ করে দুই জনের কাছে ২০ হাজার টাকা দেই একটি ঘর পাওয়ার আশায়। কিন্তু এক বছর ধরে তাদের পেছনে অনেক ঘুরেছি কিন্তু টাকাও ফেরত দেয়নি একটি ঘরও দেয়নি। এখন তাঁদের কাছে আমার একটাই দাবি, হয় ঘর দেন, না হয় টাকা ফেরত দেন। আমি ভূমিহীন। 

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আব্দুল হান্নান বলেন, আমি কোন টাকা নেইনি। আইয়ুব নিলে নিতে পারে। 

তবে সাবেক ইউপি সদস্য আইয়ুব আলী বলেন, আমার সামনেই ওই নারী বর্তমান মেম্বার আব্দুল হান্নানের হাতে ২০ হাজার টাকা দিয়েছে। আমি কোন টাকা নেইনি। 

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শ্রাবণী রায় জানান, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২৩

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com