বেনাপোল স্থলবন্দরে যাত্রী পার হবেন ৪০ সেকেন্ডে

প্রকাশ: ০৩ মার্চ ২৩ । ২২:৩৬ | আপডেট: ০৩ মার্চ ২৩ । ২২:৩৬

যশোর অফিস

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরে ই-গেট (ইলেকট্রনিক ফটক) সেবা কার্যক্রম চালু হচ্ছে শনিবার। এর ফলে পাসপোর্টধারী যাত্রীরা মাত্র ১৮ থেকে ৪০ সেকেন্ডে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম শেষ করে দুই দেশের মধ্যে যাতায়াত করতে পারবেন। শনিবার বিকেলে ই-গেট উদ্বোধন করতে যশোরে আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মতো এই স্থলবন্দরেও স্থাপিত হচ্ছে ই-গেট সেবা কার্যক্রম। এতে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াতকারী পাসপোর্টধারী যাত্রীদের ভোগান্তির সঙ্গে দালাল ও প্রতারকদের দৌরাত্ম্য কমবে। স্বাভাবিক সময়ে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ৫ থেকে ৭ হাজার মানুষ পাসপোর্টের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যাতায়াত করছেন। ঈদ ও পূজায় এই সংখ্যা দ্বিগুণ হয়। ইমিগ্রেশনে কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করতে দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় যাত্রীদের। লাইনে না দাঁড়িয়ে আগে ইমিগ্রেশন কার্যক্রমের সুযোগ করে দেওয়ার কথা বলে দালালচক্র যাত্রীদের কাছ থেকে টাকা নেয়। এতে যাত্রীরা প্রতারণা ও হয়রানির শিকার হন। যাত্রীসেবা সহজ ও নিরাপদ করতে বেনাপোল স্থলবন্দরে চারটি ই-গেট স্থাপন করা হয়েছে। এর দুটি ভারত থেকে ফেরা এবং দুটি বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশে ব্যবহৃত হবে। 

ইমিগ্রেশন পুলিশ বেনাপোলের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহসান হাবীব বলেন, বেনাপোলে ই-গেট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এই কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। সেবাটি চালু হলে ১৮ থেকে ৪০ সেকেন্ডের মধ্যে যাত্রীদের ইমিগ্রেশন কার্যক্রম শেষ করা হবে। ই-পাসপোর্টটি গেটের নির্দিষ্ট স্থানে স্পর্শ করে আঙুলের ছাপ দিলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে গেট খুলে যাবে। এতে গমনাগম নিরাপদ হবে। মানুষের ভোগান্তি কমবে। 

ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ১৮ জানুয়ারি থেকে দেশে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময়ের মধ্যে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের শুধু যশোর কার্যালয় থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার মানুষ ই-পাসপোর্টের আওতায় এসেছেন। দেশের বেশিরভাগ মানুষ এখনও ই-পাসপোর্টের আওতায় আসেনি। যে কারণে ই-গেট সেবার পাশাপাশি ম্যানুয়াল পদ্ধতির সেবাও সচল থাকবে। 

ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর যশোর আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপপরিচালক মেহেদী হাসান কুতুব বলেন, সব জেলা পাসপোর্ট অফিসে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পাসপোর্টধারী সবাইকে ই-পাসপোর্টের আওতায় আনতে সময় লাগবে। 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২৩

সম্পাদক : আলমগীর হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com