ইন্দুরকানীতে 'বিদ্যুৎস্পর্শে' পরিবারকল্যাণ সহকারীর মৃত্যু

প্রকাশ: ২৭ মার্চ ২৩ । ১১:২০ | আপডেট: ২৭ মার্চ ২৩ । ১১:২০

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

চামেলী রানী

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় নিজের ঘরে 'বিদ্যুৎস্পর্শে' চামেলী রানী (৫৫) নামে এক পরিবারকল্যাণ সহকারীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাতে স্থানীয়রা ঘরের দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

চামেলী রানী উপজেলার উত্তর কলারণ
গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক প্রয়াত জীবন কৃষ্ম করের
স্ত্রী।তার দুই ছেলে ঢাকায় থাকেন। ইন্দুরকানীর বাড়িতে তিনি একাই থাকতেন।

স্থানীয়রা জানান, চামেলী রানীর ছেলেরা ঢাকা থেকে ফোন করে মাকে না পেয়ে প্রতিবেশীদের ফোন করে মায়ের খবর নিতে বলে। পরে প্রতিবেশীরা চামেলী রানীর বাড়িতে গিয়ে সাড়া-শব্দ না পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে ফ্রিজের পাশে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় তার দুই হাতসহ শরীরের আংশিক পোড়া ছিল। প্রতিবেশীদের ধারণা, বিদ্যুতায়িত হয়ে চামেলী রানীর দুই হাতসহ শরীরের আংশিক পুড়ে যায়।

স্থানীয় উত্তর কলারণ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. মিজানুর রহমান জানান, বদ্ধ ঘরে বিদ্যুতায়িত হয়ে পরিবারকল্যাণ সহকারী চামেলী রানী মারা যান। তার শরীরের কিছু অংশ পুড়ে যায়। স্থানীয়রা ঘরে কোনো সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. সোহাগ হোসেন জানান, 'পরিবারকল্যাণ সহকারী চামেলী রানী ঘরে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা গেছেন বলে শুনেছি।'

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, 'বিদ্যুতায়িত হয়ে পরিবারকল্যাণ সহকারী চামেলী রানীর মৃত্যু হয়েছে বলে শুনেছি। লাশ ময়নাতদন্তের পর সৎকারের ব্যবস্থা করা হবে।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২৩

সম্পাদক : আলমগীর হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৭১৪০৮০৩৭৮ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com