আমিরাতে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন

প্রকাশ: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

ইউএই প্রতিনিধি

হিন্দু মহাজোটের দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে নেতারা

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট বৈদেশিক শাখা সংযুক্ত আরব আমিরাতের কেন্দ্রীয় কমিটির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির মদিনা জায়েদের একটি পার্টি হলে সম্মেলনের সভাপতিত্ব করেন বৈদেশিক শাখার আহবায়ক রুপেশ দাস।

সজল চৌধুরী ও পুলক চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায় সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন- বাংলাদেশ সমিতি ফুজিরা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রকৌশলী তপন সরকার। প্রধান বক্তা ছিলেন- প্রকৌশলী সুবোধ চৌধুরী শিবু। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আল আইন মরুতীর্থ প্রবাসী গীতা সংঘের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জগদীশ্বরানন্দ পুরি মহারাজ। 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হিন্দু মহাজোটের সদস্য সচিব সঞ্জয় শীল। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন এসকে দাস কাঞ্চন, মৃণাল কান্তি ধর, কানুরাম দাস, কিশোর চক্রবর্তী, সনজিৎ মহাজন, শিবলু দাস, সাংবাদিক সঞ্জীত কুমার শীল, সুবীর কান্তি দে বিটন, সুজন শর্মা, সজল চৌধুরী, সনজিৎ মহাজন, রাখাল শীল, জগদীশ শীল অপু দাস, প্রসেনজিৎ শীল, পরিমল দাস পার্থ , দিলীপ দাস ও রাজীব কান্তি শীল প্রমুখ।

‘যত মত তত পথ হিন্দু স্বার্থে একমত’ এই স্লোগানে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে নির্যাতিত সনাতনীদের পাশে দাঁড়ানো এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য।

তারা বলেন, ‘জাতীয় হিন্দু মহাজোট সরকারের নিবন্ধিত সংগঠন। এই সংগঠনের মাধ্যমে প্রবাস থেকে নির্যাতিত-নিপীড়িত সনাতনীদের সহায়তা করা, বাল্য বিবাহ বন্ধ করা, ঘরে ঘরে ধর্মীয় গীতা শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন করা, মানবজাতির কল্যাণে কাজ করা, সরকারের কাজে সহযোগিতা করা, হিন্দুদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা এই সংগঠনের কর্ম পরিধিতে রয়েছে। এমনকি যেকোনো সময়ে তাদের নির্যাতন বন্ধ করার জন্য সরকার এবং বিরোধী দলের হস্তক্ষেপ কামনাও করা হবে এই সংগঠনের মাধ্যমে।’ 

সম্মেলনে প্রকৌশলী তপন সরকারকে সভাপতি, রূপক দাশকে নির্বাহী-সভাপতি, সঞ্জয় শীলকে সাধারণ সম্পাদক, সঞ্জিত কুমার শীলকে সাংগঠনিক সম্পাদক মনোতোষ শীলকে অর্থ সম্পাদক করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী কমিটি ঘোষণা করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে বিশ্বের শান্তি কামনায় প্রার্থনা করা হয়।