করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রুখতে কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত বন্ধ রাখার মেয়াদ আরও একমাস বাড়ানো হয়েছে।

কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত বন্ধের চুক্তি ২১ অক্টোবর শেষ হওয়ার কথা ছিল।  তবে কানাডার সরকার সোমবার ঘোষণা করে, আগামী ২১ নভেম্বর পর্যন্ত সীমান্ত বন্ধ থাকবে। 

বুধবার উইনিপেগ পডকাস্ট দ্য স্টার্ট-এ এক সাক্ষাৎকারে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে করোনার প্রাদুর্ভাব না কমা পর্যন্ত কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত বন্ধ রাখার পরিকল্পনা রয়েছে। 

গত ১৮ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত বন্ধের জন্য একটি পৃথক প্রাক্কলন প্রস্তাব করেছিলেন। হোয়াইট হাউসে তিনি বলেছিলেন, আমরা কানাডার সীমান্তের দিকে নজর দিচ্ছি। কানাডা এটি খুলতে চাই। আমরা শিগগির সীমানাগুলি খুলব। আমরা আবার স্বাভাবিক ব্যবসায় ফিরে যেতে চাই।

অন্যদিকে, কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। যদিও কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯৯ হাজার ৯৭০ জন, মারা গেছেন ৯ হাজার ৭৭২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৯৯ জন।