সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) অর্থ পাচার ও সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর অর্থ অনুদান ঠেকাতে নির্বাহী কার্যালয় স্থাপন করেছে। বুধবার আরব আমিরাতের ভাইস-প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের শাসক মুহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম কার্যালয়টির অনুমোদন দিয়েছেন।

ইমিরেটস নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, নির্বাহী এই কার্যালয় দেশটির অর্থ পাচার, সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে অর্থ অনুদান এবং এ বিষয়ে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা কি সে বিষয়ে সরাসরি নজর রাখবে। এছাড়া দেশটির আর্থিক দুর্নীতি ঠেকাতেও ভূমিকা রাখবে।

হামিদ আল জাবিতে নির্বাহী এই কার্যালয়ের মহাপরিচালক করা হয়েছে। তিনি সরাসরি দেশটির পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহায়তা বিষয়ক মন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহুয়ানকে অর্থ পাচার ও দেশটির আর্থিক দুর্নীতি বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করবেন।

দেশটির বিশেষ এই উদ্যোগ নিয়ে হামিদ আল জাবি বলেন, 'বিশ্বে আর্থিক দুর্নীতির মাত্র যেমন বেড়েছে। তেমনি নতুন নতুন দুর্নীতির ধারণাও জন্ম নিয়েছে। আর্থিক স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার বিষয়টি আরব আমিরাত তাই গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছে। বিষয়টি অনুধাবন করে সচেতনার জায়গা থেকে আমিরাত এই কার্যালয় প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা নিয়েছে।'

তিনি মনে করছেন, এই কার্যালয় দেশটির অর্থ বিদেশে পাচার বন্ধে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে অর্থ অনুদানের যে অভিযোগ আছে, সেটা রুখতে সহায়তা করবে। এটাকে আরব আমিরাতে সংগঠিক হওয়া অত্যাধুনিক উপায়ে আর্থিক দুর্নীতি প্রতিরোধের রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।