চীনের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন নিলেই চীনে যাওয়ার ভিসা মিলবে। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের চীনা দূতাবাস থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে এরকম আশ্বাস দেয়া হয়েছে। 

বিবৃতিতে বলা হয়, চীনে যাওয়ার ভিসা পেতে আগ্রহীদের মধ্যে যারা চীনের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন, তাদের আবেদন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিবেচনা করা হবে। এমনকী, যুক্তরাষ্ট্র, ভারত ও পাকিস্তানের নাগরিকরাও এই সুবিধা পাবেন বলেও জানানো হয়েছে। খবর এনডিটিভির।

গত বছর বিশ্বের সর্বপ্রথম দেশ হিসেবে চীনে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। মার্চ থেকে বিদেশিদের চীনে ঢোকা বন্ধ করে দেয়া হয়। এর ফলে চীনে চাকরি করে, এমন বিদেশিরাও আটকা পড়ে যায়। তবে দেশটির কর্তৃপক্ষ এবার চীনে বিদেশিদের ঢোকার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে যাচ্ছে। এর প্রথম শর্ত হলো, বিদেশ থেকে আগতদের অবশ্যই ভ্যাকসিনেটেড হতে হবে। আর যারা চীনা ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছে, তাদের ভিসা সবার আগেই মঞ্জুর করা হবে।

চাকরি, ব্যবসা-বাণিজ্য, ব্যবসায়িক ভ্রমণ কিংবা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য যারা চীনে আসতে চান, তাদের ভিসা দেয়ার ব্যাপারে চলতি সপ্তাহেই এই কার্যক্রম শুরু হয়েছে।  চীন তাদের নিজেদের তৈরি চারটি ভ্যাকসিন এখন ব্যবহার করছে। বিশাল জনসংখ্যার দেশে এগুলো প্রয়োজন মেটানোর কাজে লাগলেও বিদেশ থেকে ভ্যাকসিন আমদানির পরিকল্পনা নেয়নি এখনো। অবশ্য নিজেদের তৈরি ভ্যাকসিন তারা বিদেশেও রপ্তানি করছে।

দূতাবাসের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ভিসার জন্য আবেদনের কম পক্ষে ১৪ দিন আগে যাদের ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ বা একটি ডোজ নেয়া হয়েছে, তাদের ক্ষেত্রে এই সুবিধা প্রযোজ্য হবে।

ভারত, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, ইতালি এবং শ্রীলঙ্কাসহ অন্যান্য দেশে চীনা দূতাবাসগুলো এই ধরণের বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

মন্তব্য করুন