সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে নির্মাণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল। দুবাইস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে শোভা পাচ্ছে জাতির পিতার এই ম্যুরাল। শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। 

শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের সুর্বণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ ঘিরে বাংলাদেশ কনস্যুলেট সেজেছে ভিন্ন সাজে। নির্মাণ করা হয়েছে মুজিব কর্নার, যেখানে রাখা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর দেশ-বিদেশ সফর ও নানা কর্মকাণ্ডের স্থিরচিত্র। কনস্যুলেটের দেয়ালে আঁকা হয়েছে ১৯৪৭ থেকে ৭১ পর্যন্ত বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য ঘটনা ও সরকারের সাফল্যের সূচক। এছাড়াও এতে তুলে ধরা হয়েছে দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিদর্শনস্বরূপ কিছু চিত্রকর্ম। স্থানীয় শিল্পীদের রংতুলিতে আঁকা এসব চিত্রকর্ম প্রতিদিন নজর কাড়ছে আগত সেবাপ্রার্থী ও দর্শনার্থীদের।

জানা গেছে, দুবাইস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল চালু হওয়ার ৪১ বছর পর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার নিদর্শন হিসেবে নির্মাণ করা হয় বঙ্গবন্ধুর এই ম্যুরাল। ম্যুরাল নির্মাণে সময় লেগেছে প্রায় দুই মাস। এছাড়া দেয়ালের চিত্রকর্ম, সূচক অঙ্কন ও আনুষঙ্গিক প্রস্তুতিতে তিন মাসের মত সময় লেগেছে।

দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ডেপুটি কনসাল জেনারেল সাহেদুল ইসলাম সমকালকে বলেন, প্রবাসে কিছু মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও স্বাধীনতার স্বপক্ষের ব্যক্তির সহযোগিতায় দেশের বাইরে জাতির পিতার এই ম্যুরাল তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। দেশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের চিত্রকর্মও এখানে তুলে ধরেছি আমরা।

মন্তব্য করুন