সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনার আগে-পরে দায়িত্বে অবহেলা ও অপেশাদারি আচরণের কারণে শাল্লা থানার ওসি নাজমুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশের বরিশাল রেঞ্জে সংযুক্ত করার কথা জানানো হয়।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, অদক্ষতা ও অসদাচারণের দায়ে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮’এর বিধি ১২(১) মোতাবেক শাল্লা থানার ওসি নাজমুল হককে চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এদিকে প্রশাসনিক কারণ দেখিয়ে দিরাই থানার ওসি আশরাফুল ইসলামকে মৌলভীবাজার জেলায় বদলি করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে এ সংক্রান্ত চিঠি ইস্যু করেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ।

নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ঝুমন দাশ আপনের বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলাম নেতা মামুনুল হককে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তির অভিযোগে গত ১৭ মার্চ সকালে শাল্লা উপজেলার কাশিপুর, দিরাই উপজেলার নাচনি, সন্তোষপুর ও চন্ডিপুর গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ লাটিসোটা নিয়ে নোয়াগাঁওয়ে তাণ্ডব চালায়।