যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের এলেন শহরে নিহত বাংলাদেশি একই পরিবারের ছয়জনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুরে জনাজা শেষে তাদের টেক্সাসের ডেন্টন মুসলিম কবরস্থানে দাফন করা হয়।

বাবা-মা, ভাই-বোন, আর নানী পাশাপাশি চির নিদ্রায় শায়িত হলেন ডেন্টন মুসলিম কবরস্থানে। পরম যত্নে গড়ে তোলা এলেন শহরের পাইন ব্লাফ ড্রাইভের ১৫১৭ নম্বর সুন্দর বাড়িটিতে থাকার আর কেউ রইল না।

দুপুরে ইসলামিক অ্যাসোসিয়েশন অব এলেন প্রাঙ্গনে জানাজার আগে শেষ বারের মত প্রিয় মুখগুলো দেখে অশ্রুসজল বিদায় জানান নিহত তৌহিদদের ভাই আজাজুল ভুঁইয়া, স্ত্রী নীলার ভাই আনেদ রহমান আতা এবং নানী আলফাতুন্নেসার ভাই শফিক ইসলাম জিন্নাহ সহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এ সময় শোকে পুরো পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে।

এর আগে ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার বাবা ও দুই ছেলের লাশ এবং পরের দিন বুধবার মা, বোন ও নানীর লাশ নিউ ইয়র্ক ও ফ্লোরিডার মায়ামি থেকে আসা ভাইদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ।

নিহত তৌহিদের নিজ বাড়ি ঢাকা ও শাশুড়ি আলফাতুন্নেসার পাবনার স্বজনদেরও তাদের প্রিয়মুখ গুলোদেখার  আকুতি থাকলেও কোভিড পরিস্থিতি ও বিমান জটিলতায় তা সম্ভব হয়নি বলে জানা যায়।

উল্লেখ্য, সোমবার টেক্সাসের নিজ বাড়ি থেকে ভোররাতে ছয়জনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ড নিয়ে একটি সুইসাইডাল নোটের সূত্র ধরে চাঞ্চল্যকর এ হত্যার ঘটনাটির পুলিশি তদন্ত চলছে।


মন্তব্য করুন