যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় পুলিশের গুলিতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক নিহত হওয়ার বিষয়কে ‘দুর্ঘটনা' বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

স্থানীয় সময় সোমবার বিকেলে অঙ্গরাজ্যটির ব্রুকলিন সেন্টার শহরে পুলিশের গুলিতে ডন্টি রাইট (২০) নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক নিহত হন। 

ব্রুকলিন সেন্টার পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ট্রাফিক আইন অমান্য করার পর ডন্টি রাইটকে থামাতে গেলে বিপত্তি বাধে। তার সঙ্গে পুলিশের তর্ক হয়। একপর্যায়ে ডন্টি রাইট ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে উদ্যত হন। ঘটনাস্থলে পুলিশ কর্মকর্তা বৈদ্যুতিক শক ছুড়ে অজ্ঞান করার যন্ত্র বা ট্যাজার দিয়ে তাকে থামাতে উদ্যত হন। খবর আল জাজিরার

ব্রুকলিন সেন্টার পুলিশের প্রধান টিম গ্যানন জানান, ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তা তার কোমরে থাকা ট্যাজার ব্যবহার করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি ভুলক্রমে পিস্তল ব্যবহার করে ফেলেন। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন ডন্টি রাইট।

এদিকে এ ঘটনায় ব্রুকলিন সেন্টারসহ যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ব্রুকলিন সেন্টার শহরে কারফিউ জারি করা হয়। তবে কারফিউ অমান্য করেই বিক্ষোভকারীরা সমাবেশ করেন।

শহরটির মেয়র মাইক ইলিয়ট জানিয়েছেন, একটি যৌথ কমান্ড সেন্টার থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হচ্ছে। এই মুহূর্তে লোকজনকে রাজপথের বিক্ষোভ থেকে ঘরে পাঠানোকেই গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। 

দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সব পক্ষকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

এর আগে গত বছরের মে মাসে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস শহরে শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তার হাতে নিহত হন কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড। তার মৃত্যুর জেরে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে উত্তাল হয়ে ওঠে পুরো যুক্তরাষ্ট্র। 

মন্তব্য করুন