পূর্ব লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের একটি নির্মাণাধীন আবাসিক ভবনের নামকরণ করা হয়েছে বর্ণবাদী হামলায় নিহত বাংলাদেশি তরুণ আলতাব আলীর নামে।

বুধবার ভবনটিতে ‘আলতাব আলী হাউজ’ নামকরণ ফলক আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস।

এক প্রতিক্রিয়ায় মেয়র জন বিগস বলেন, আলতাব আলীর নামে কাউন্সিল বিল্ডিংয়ের নামকরণের ফলে তার নাম বেঁচে থাকবে। সকল প্রকার ঘৃণা ও অসহিষ্ণুতার বিরদ্ধে আমরা অব্যাহতভাবে রুখে দাঁড়াবো এবং চল্লিশ বছরেরও বেশি সময় আগের এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের ইতিহাস সম্পর্কে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে জানিয়ে যাবো।

আলতাব আলী হাউজ নামকরণ ফলক উন্মোচনকালে মেয়র জন বিগসের সাথে ছিলেন স্ট্যাটুটরি ডেপুটি মেয়র ফর কমিউনিটি সেফটি, ফেইথ এন্ড ইক্যূয়েলিটিজ কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম, কেবিনেট মেম্বার ফর প্ল্যানিং এন্ড সোশ্যাল ইনক্লুসন কাউন্সিলর ইভ ম্যাকুইলান, কাউন্সিলর আব্দাল উল্লাহ ও কাউন্সিলর ডেনিস জোনস।

ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটসের মধ্যে আলতাব আলীর হত্যাকাণ্ড কখনোই ভুলে যাওয়ার নয়। এই ভবন সকল প্রকার ঘৃণা ও বর্ণবাদের বিরুদ্ধে টাওয়ার হ্যামলেটসের সকল কমিউনিটির ঐক্যবদ্ধ অবস্থানে অনুস্মারক হিসেবে কাজ করবে। 

তিনি বলেন, আমাদের হাউজিং লিস্টে থাকা লোকজনকে সামাজিক ভাড়ায় ঘর পাওয়াটা নিশ্চিত করতে এই উন্নয়ন প্রকল্প সাহায্য করবে।

উল্লেখ্য, ১৯৭৮ সালে হোয়াইটচ্যাপল পার্কের (বর্তমান আলতাব আলী পার্ক) কাছে বর্ণবাদীদের হামলায় প্রাণ হারান বাংলাদেশি তরুণ আলতাব আলী। এই হত্যাকাণ্ড সেদিন বাংলাদেশি কমিউনিটিসহ বৃহত্তর কমিউনিটিকে জাতিগত অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে অনুপ্রাণিত করেছিল। আলতাব আলী হত্যার শিকার হওয়ার কিছু দিন আগেই পৌঁছেছিলেন বৃটেনে। তিনি ব্রিক লেনের কাছে একটি গার্মেন্ট ফ্যাক্টরিতে কাজ শেষে নিজ ঘরে ফেরার পথে হোয়াইটচ্যাপল পার্কের কাছে বর্ণবাদীদের ছুরিকাঘাতে খুন হন।

মন্তব্য করুন