করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা বৈঠকে বসছেন। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, সিনিয়র সচিব ও সচিবসহ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত থাকবেন। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালের সিট সংখ্যা বৃদ্ধি ও বেশি ডাক্তার নিয়োজিত করে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে স্পেন, ডেনমার্ক, সুইডেন, নরওয়ে, জার্মানির অনেক কিছু থাকা সত্ত্বেও এর মধ্যে জার্মানি করোনা মোকাবিলায় অসহায় হয়ে পড়েছিল। ভারতও হিমশিম অবস্থায়। তবে করোনা থেকে মুক্ত থাকতে সকলকে মাস্ক পরতে হবে।’ 

লকডাউন আরও বাড়ানো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘মঙ্গলবারের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘রোববার শিল্পাঞ্চল পুলিশের অ্যাডিশনাল আইজির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। এসব অফিসের মেশিনগুলো চালু রাখতে টেকনিক্যাল কর্মী আসা যাওয়া করছেন। কারণ তারা কারখানার অনেক যন্ত্রাংশ সার্ভিসিং করে থাকেন। এরপরও মোবাইল কোর্ট চেকিং করছে।’