যুক্তরাষ্ট্রে আবারও করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে টিকাদানের ওপর জোর দিতে নতুন টিকাগ্রহীতাদের ১০০ ডলার করে প্রণোদনা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বাইডেন প্রশাসন। 

ইতোমধ্যে সব রাজ্যে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে হোয়াইট হাউস। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীদের জন্য টিকা-সংক্রান্ত নতুন নির্দেশনাও জারি করা হয়েছে। নতুন এ নির্দেশনার ফলে দেশটির প্রায় ২০ লাখ সরকারি কর্মীকে এখন টিকা নেওয়ার প্রমাণ দেখাতে হবে, নয়তো বাধ্যতামূলকভাবে প্রতি সপ্তাহে একাধিকবার শনাক্তকরণ পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে ও মাস্ক পরতে হবে।

নতুন টিকাগ্রহীতাদের আর্থিক প্রণোদনা দেওয়ার ব্যাপারে বাইডেন বলেন, 'টিকাগ্রহীতাদের ১০০ ডলার প্রণোদনা দিতে রাজ্যগুলো ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন ডলারের কেন্দ্রীয় প্রণোদনা তহবিল থেকে অর্থ নিতে পারবে। বেশি মানুষকে টিকাদানের আওতায় নিয়ে আসতে পারলে আমরা সবাই লাভবান হবো।' পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার পেছনে বিপুলসংখ্যক মানুষের টিকা না নেওয়াকে দায়ী করে ডেমোক্র্যাট এ প্রেসিডেন্ট বলেন, 'অতি সংক্রামক ডেলটা ধরনের বিস্তারের কারণেই টিকা-সংক্রান্ত নতুন নির্দেশনা দিতে হয়েছে। মানুষ মারা যাচ্ছে, অথচ তাদের মারা যাওয়ার কথা ছিল না।'

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি হিসাব অনুযায়ী, টিকা নেওয়ার উপযুক্তদের অর্ধেককেই এখন পর্যন্ত টিকার সব ডোজ দেওয়া যায়নি। দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাউসি বলেছেন, যেসব এলাকায় টিকাদানের হার কম, সেখানে করোনাভাইরাসের ডেলটা ধরনের সংক্রমণ বাড়ছে। এই সংক্রমণ ঠেকাতে নতুন নতুন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। 

সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এক নির্দেশনায় আবার সবাইকে মাস্ক ব্যবহার করতে বলেছে। সূত্র: বিবিসি