নিউইয়র্কে ১৭টি পূজা মণ্ডপে শুরু হয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের  বড় উৎসব দুর্গাপূজা । ১১ থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত তিথী অনুযায়ী এবারের দুর্গাপূজা চলছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে মণ্ডপ প্রাঙ্গণ সবার জন্য উন্মুক্ত হয় এবং মধ্যরাতের পর বন্ধ হয়। সর্বজনীন এই উৎসবে সব ধর্মের মানুষকে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে।  

জ্যাকসন হাইটসে অঞ্চলের একমাত্র স্থায়ী মন্দির ওম শক্তি। এ মন্দিরের সভাপতি গৌরাঙ্গ রায় বলেন, সোমবার থেকে শুরু হওয়া পাঁচ দিনের এই পূজায় অন্তত ২০ হাজার মানুষের সমাগম ঘটবে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ঠাকুর চণ্ডি উপনিবেশ এবং অন্যান্য ধর্মগ্রন্থ থেকে মন্ত্র পাঠের মধ্য দিয়ে পূজা করেন। তারপর ভক্তবৃন্দ অঞ্জলি দেন। 

গৌরাঙ্গ রায় আরও বলেন, সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টা পর্যন্ত চলে সন্ধ্যা আরতি। এরপর মধ্যরাত পর্যন্ত নাচ-গান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। দুপুরে পূজা শেষ হলে শুরু হয় প্রসাদ বিতরণ, চলে মধ্যরাত পর্যন্ত। 

সাংস্কৃতিক সংগঠক গোপাল সান্যাল বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজা সর্বজনীন উৎসবের রূপ নিয়েছে। পূজা এলেই ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালি মেতে উঠে উৎসব আমেজে। এই প্রাণবন্ত আমেজ সকল মানুষের মাঝে শান্তির বার্তা বয়ে আনুক। উৎসব থেকে উচ্চারিত হোক পৃথিবীর তাবৎ দানবিক..অসুরিক.. জঙ্গিবাদ মৌলবাদ ও সন্ত্রাসী আগ্রাসন শক্তির বিনাশ ঘটুক। উৎসারিত হোক, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। 

নিউইয়র্কের উল্লেখযোগ্য পূজামণ্ডপগুলো হলো সর্বজনীন পূজা উদযাপন পরিষদ ইউএসএ ইনক, শ্রীকৃষ্ণ ভক্ত সংঘ ইউএসএ, উত্তর আমেরিকা হিন্দু কল্যাণ সংঘ, আমেরিকান বাঙালি হিন্দু ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ। হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ আন্তর্জাতিক মতুয়া মিশন,  বাংলাদেশ সেবা সংঘ, শ্রী শ্রী রাধামাধম মন্দির, মহামায়া মন্দির এবং সত্যনারায়ণ পূজা মণ্ডপ।