নিউইয়র্কে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮৩তম জন্মদিন উদযাপন করা হয়েছে। আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার উদ্যোগে জামাইকার স্টার কাবাব রেস্টুরেন্টে ৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শেখ ফজলুল হক মনির জীবন, কর্ম এবং সংগ্রাম নিয়ে আলোচনা করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ডক্টর সিদ্দিকুর রহমান।

আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক বাহার খন্দকার সবুজ এর সঞ্চালনায় সিদ্দিকুর রহমান বলেন, শেখ ফজলুল হক মনির মতো যোগ্য নেতৃত্ব ছিল বলেই বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এখনও সদর্পে আছে। মনির আদর্শ বাস্তবায়ন করতে হলে সুষ্ঠু সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে হলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় যেতে হবে।

আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার আহ্বায়ক তারিকুল হায়দার বলেন, যারা যুবলীগ করেন তাদের প্রত্যেকের উচিত শেখ ফজলুল হক মনির লেখা ও জীবন পাঠ করা। আওয়ামী যুবলীগ যেখানে যে অবস্থাতেই থাকুক দেশের এই প্রয়োজনীয় সময়ে আমাদের সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী যুবলীগ নেতা আতিকুর রহমান সুজন, একরামুল হক সাবু, সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া, ইমরান আলী, কামাল উদ্দিন, এনামুল হক ভূঁইয়া রিপন, কামরুজ্জামান মুরাদ, মাসুদুর রহমান, শামসুজ্জুহা তালুকদার ডন, সাঈদ আহমেদ, কাজিম উদ্দিন, মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, সুমন হাসান, আজমির ইসলাম, নিশু চৌধুরী-জাফর, মোহাম্মদ রফিক, হালিম উদ্দিন, পল্লব রায়, লিটন তালুকদার, মুজাহিদুল ইসলাম শাহীন, রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ রাসেল, কারার তানভীর, মঞ্জুরুল আলম বিটু, ডেনি, মোহাম্মদ সোহে এবং রাব্বি আল মোহাম্মদ তপু। 

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, মুজিব বাহিনীর অধিনায়ক ও যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনি ১৯৩৯ সালের ৪ ডিসেম্বর টুঙ্গিপাড়ায় শেখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম শেখ নূরুল হক বঙ্গবন্ধুর নিকটতম আত্মীয় ও ভগ্নিপতি। মা শেখ আছিয়া বেগম বঙ্গবন্ধুর বড় বোন।

শেখ ফজলুল হক মনির ছেলে শেখ ফজলে নূর তাপস ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বর্তমান মেয়র। আরেক ছেলে শেখ ফজলে শামস পরশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান। 

শেখ ফজলুল হক মনি ঢাকা নবকুমার ইন্সটিটিউট থেকে মাধ্যমিক ও জগন্নাথ কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর ১৯৬০ সালে বরিশাল বিএম কলেজ থেকে বিএ ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৬০-৬৩ সালে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৬২ সালে হামিদুর রহমান শিক্ষা কমিশন রিপোর্টের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ায় তিনি গ্রেপ্তার হন। ১৯৬৫ সালে পাকিস্তান নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার হন এবং দেড় বছর কারাভোগ করেন। 

১৯৬৬-এর ৬ দফা আন্দোলন তার রাজনৈতিক জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে দেশের কল্যাণকামী যুবসমাজকে সঙ্গে নিয়ে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ প্রতিষ্ঠা করেন শেখ ফজলুল হক মনি এবং তিনি এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। 

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ঘাতকের বুলেটে নিহত হন শেখ মনি।