ঢাকা শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

বোস্টনে আডুয়ানির অভিষেক ও বিজয় দিবস উদযাপন

বোস্টনে আডুয়ানির অভিষেক ও বিজয় দিবস উদযাপন

ছবি: সমকাল

ছাবেদ সাথী, যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশ: ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ০৪:৪১ | আপডেট: ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০:৩৭

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে অ্যাসোসিয়েশন অব ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অব দ্য নর্থইস্টের (আডুয়ানি) নতুন কমিটির অভিষেক ও বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। 

স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যায় ক্যামব্রিজের পিবডি এলিমেন্টারি স্কুলে এক অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা শপথ গ্রহণ করেন। তাদের শপথ পাঠ করান নির্বাচন কমিশনার ড. খন্দকার করিম। পরে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাবরিনা ফারাহ ও  আহ্বায়ক মনির সাজি। সাবরিনা ফারাহ, রওনাক আফরোজ ও জান্নাতুন নেসার  যৌথ সঞ্চালনায় নতুন এ সংগঠনের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে গঠনমূলক বক্তব্য রাখেন নবনির্বাচিত সভাপতি ড. সৈয়দ মনসুর। এছাড়া আগের সংগঠন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ডের (ডুয়ানি) অতীতের কর্মকাণ্ড ও দু’গ্রুপের বিভক্তির তথ্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর আহমেদ হাসান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. নুরুল আমান, ড. সালেহ এম রহমান ওরফে সেজান মাহমুদ ও মীর ফজলুল করিম।

বিদিশা দেওয়ানজির পরিচালনায় সাংস্কৃতিক পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন সেজান মাহমুদ, শারমিন আজম, বিদিশা দেওয়ানজি, মার্কিন সংগীত শিক্ষক জন থরপি, ব্যারিস্টার জিয়াউল হাসান, সাওগাতা সরকার তাজিন আহমেদ, ব্রিয়ানা বিশ্বাস, রাফিয়া খান, রাই সরকার, আদিশা ও রাফিয়া। বাঁশি বাজিয়ে শোনান সাওগাতা সরকার ও শামীমা আব্দুল্লাহ। কবিতা আবৃত্তি করেন ড. আব্দুল্লাহ শিবলী, স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি বদিউজ্জামান নাসিম। শিল্পীদের যন্ত্রে সঙ্গত করেন কী বোর্ডে জুয়েল, তবলায় সাগর ও গিটারে বিদ্যুৎ।

বোস্টনে ২০১১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু সংখ্যক সাবেক ছাত্রের সমন্বয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব নিউইংল্যান্ড (ডুয়ানি) নামে একটি সংগঠন চালু হয়। কয়েক বছর আগে সংগঠনটির নেতৃত্বের কোন্দলে জড়িয়ে পড়েন সদস্যরা। দু’গ্রুপের মধ্যে চলে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ। ডুয়ানির কমিটি নিয়ে নানা অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতা অপব্যবহারের অভিযোগ ওঠে। শেষ পর্যন্ত বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। 

সাবেক সভাপতি ডা. আব্দুল হাকিম আদালতে দায়ের করা মামলায় জিতেছেন বলে দু’বার ভুয়া দাবি তোলেন। অথচ আদালত কখনো কোনো রায় (ভার্ডিক্ট) দেননি। তিনি দীর্ঘ এক বছর ধরে কমিটির নানা বিষয় গোপন রেখেও তাতে সফল হননি। তিনি আলোচনায় বসেও সাধারণ সদস্যদের প্রশ্নের কোনো সদুত্তরও দিতে পারেননি। ভোটার তালিকা তৈরিতে ডা. আব্দুল হাকিম চরম অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি মনগড়া নিজের পছন্দের লোকদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি করেন। তিনি ৫৮ জন আবেদনকারীকে অযোগ্য বলে ঘোষণা করেন। এ বিষয়টি নিয়ে সাধারণ সদস্যদের মধ্যে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিলে নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেন। 

ডুয়ানি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যে সমস্যা দেখা দিয়েছিল অবশেষে তার সমাধান হয়েছে। কোন্দল এড়াতে এ কমিটির সদস্যরা আডুয়ানি নামে নতুন সংগঠন করেন।

এ কমিটিতে ড. সৈয়দ মনসুর সভাপতি, ড. মাহমুদা ইসলাম সহসভাপতি, সাবরিনা ফারাহ সাধারণ সম্পাদক, সৈয়দ এ সালাম ওরফে শিলু যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কাওসারুল হক সাংগঠনিক সম্পাদক, শরীফ আহমেদ কোষাধ্যক্ষ, ড. মাহফুজা মালিক শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক, বিদিশা দেওয়ানজি সাংস্কৃতিক সম্পাদক, তামজিদ এসএম অ্যালামনাই নেটওয়ার্কিং সম্পাদক, রওনাক আফরোজ বৈদেশিকবিষয়ক সম্পাদক ও মীর ফজলুল করিম মিডিয়া সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।    
 

আরও পড়ুন

×