গণহত্যা দিবস পালন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল। স্থানীয় সময় শুক্তবার দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়। ২৫ মার্চ কালো রাতসহ স্বাধীনতা যুদ্ধের সকল শহীদ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সব শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশের অব্যাহত শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের জন্য বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে এ বিশেষ দিবসটির ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট ও তাৎপর্য নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ড. ইসলাম তার বক্তব্যে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালো রাত্রে ঢাকাসহ সারাদেশে ইতিহাসের যে নৃশংসতম ও বর্বরতম হত্যাকাণ্ড অনুষ্ঠিত হয়েছিল তা বর্ণনা করেন। বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক এ দিনটিকে গণহত্যা দিবস ঘোষণা করার যথার্থতা তুলে ধরে তিনি এ দিবসটির পক্ষে বিশ্ব-স্বীকৃতি আদায়ের লক্ষ্যে সকলকে স্বীয় অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার অনুরোধ জানান।

তিনি স্বাধীনতার মহান স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের, বিশেষকরে নতুন প্রজন্মের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আদর্শ ছড়িয়ে দেওয়ার ওপর জোর গুরুত্ব আরোপ করেন। আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সফলতার চিত্র তুলে ধরে কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলা সবাইকে জাতির পিতার ‘সোনার বাংলা’র স্বপ্ন বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।