মালদ্বীপে পাকিস্তানি যুবকের ছুরিকাঘাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার শাহীন (২৪) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মালদ্বীপের রাজধানী মালের একটি রেস্টুরেন্টে এই ঘটনা ঘটে। শাহীন উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের  চাঁনপুর মধ্যপাড়ার আবদুল কুদ্দুসের ছেলে।

শাহীনের চাচা বায়জেদুল ইসলাম বলেন, শাহীন গত দেড় বছর ধরে মালদ্বীপের রাজধানীর মালের একটি রেস্টুরেন্টে কাজ করত। ওই রেস্টেুরেন্টে কাজ করেন এক পাকিস্তানি যুবকও। শনিবার সন্ধ্যায় পাকিস্তানি যুবকের সঙ্গে শাহীনের বাগবিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে পাকিস্তানি যুবক রেস্টুরেন্টে থাকা ছুরি দিয়ে শাহীনকে আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। আশঙ্কজনক অবস্থায় তাকে সেখানকার একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহীনকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ পাকিস্তানি যুবককে আটক করেছে। আমার বড় ভাই জাহিদুল ইসলাম সুজন মালদ্বীপে শাহীনের লাশের সঙ্গে আছেন।

বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ খন্দকারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমরা মালদ্বীপে বসবাসরত শাহীনের আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করছি, কীভাবে লাশ দেশে আনা যায়।

এ ব্যাপারে বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এএইচ ইরফান উদ্দিন আহম্মেদ ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করে বলেন, শাহীনের লাশ দেশে আনার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।