‘উচ্চ পর্যায়ের রাজনৈতিক সদিচ্ছা ছাড়া শিক্ষাখাতে বৈশ্বিক পরিবর্তন সম্ভব নয়’ বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। প্যারিসের স্থানীয় সময় বুধবার ইউনেস্কো সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত ট্রান্সফর্মিং এডুকেশন প্রাক–শীর্ষ সম্মেলনের উচ্চ-পর্যায়ের কমিটির সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এসময় বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, শিক্ষাখাতে টেকসই উন্নয়ন তখনই সম্ভব হবে যখন আমাদের বৈশ্বিক রাজনৈতিক অঙ্গীকার থাকবে। এজন্য তিনি উপস্থিত সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

দীপু মনি শিক্ষা বিষয়ক উচ্চ-পর্যায়ের স্টিয়ারিং কমিটির লিডারস গ্রুপের সদস্য হিসেবে এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। যা বিশ্বব্যাপী শিক্ষা খাতের সর্বোচ্চ আন্তঃরাষ্ট্রীয় নীতি-নির্ধারণী পরিষদ। বিশ্বের ছয়টি ভৌগোলিক অঞ্চলের ১২ জন শিক্ষামন্ত্রী এই গ্রুপের সদস্য। উচ্চ পর্যায়ের এই বৈঠকে সিয়েরা লিওন প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি জুলিয়াস মাদা বায়ো এবং ইউনেস্কোর মহাপরিচালক অদ্রে আজোলে, কমিটির যৌথ-সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজ একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে শিক্ষাকে রূপান্তরের জন্য জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান। ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রপতি সাহলে-ওয়ার্ক জিউডে এবং সিয়েরা লিওনের রাষ্ট্রপতি জুলিয়াস মাদা-বায়ো সহ ইউনেস্কো সদস্য রাষ্ট্রসমূহের শতাধিক মন্ত্রী এ সভার উদ্বোধনে যোগ দেন।

দিনের দ্বিতীয় ভাগে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি শিক্ষা রূপান্তর বিষয়ক একটি প্লেনারি অধিবেশনে অন্যতম বক্তা হিসেবে যোগ দেন। আর্জেন্টিনা, লাটভিয়া ও চিলির শিক্ষামন্ত্রীসহ এ খাতের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনাকালে মন্ত্রী একটি প্রযুক্তি নির্ভর ও সাশ্রয়ী শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

এসময় তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের দূরদর্শী পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন এবং এটিকে শিক্ষাখাতে দুর্যোগ মোকাবেলার একটি আদর্শ মডেল হিসেবে উল্লেখ করেন।

প্যারিসের প্রাক-শীর্ষ সম্মেলন শেষে একটি জরুরী কল ফর অ্যাকশন গৃহীত হবার সম্ভাবনা রয়েছে, যা আগামী সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিতব্য মূল শীর্ষ সম্মেলনে একটি গুরুত্বপূর্ণ কার্যপত্র হিসেবে বিবেচিত হবে।

২০১৫ সালে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ কর্তৃক গৃহীত টেকসই উন্নয়নঅভীষ্টের শিক্ষা সংক্রান্ত লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নের সমন্বয়কারী সংস্থা হিসেবে ইউনেস্কো এই প্রাক শীর্ষ সম্মেলন আয়োজন করে।