জুম মিটিংইয়ের মাধ্যমে 'অলৌকিক কমিটি বাণিজ্য' বন্ধ করে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়নের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির 'আসল কমিটি' গঠনের দাবি জানিয়েছেন দেলোয়ার-বাদল নেতৃত্বাধীন নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির নেতারা। গত রবিবার সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনের একটি রেস্তোরাঁয় অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির নেতাকর্মীরা কেন্দ্রীয় কমিটির দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আগে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করতে হবে। দায়িত্বশীলদের বাস্তবতা বুঝে মাঠের কর্মীদের মতামত নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটি গঠন করতে হবে। বিদেশে বসে জুম মিটিংইয়ে সভা করে পকেট কমিটি ঘোষণা করলে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতাকর্মীরা তা মেনে নেবে না।

অধ্যাপক দেলোয়ার-বাদল নেতৃত্বাধীন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি ঘোষিত নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির আহবায়ক সালেহ আহমেদ মানিকের সভাপতিত্বে এবং ষ্টেট বিবিএনপির সদস্য সচিব মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন শিপন ও নিউ ইয়র্ক সিটি বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটি হয়।

সভা শুরুর আগে ব্রুকলিনে সাম্প্রতি স্থাপিত ‘লিটল বাংলাদেশ’ (চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড ইন্টারসেকশন)-এ র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, প্রধান বক্তা ছিলেন মূলধারার রাজনীতিক ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আখতার হোসেন বাদল, বিশেষ অতিথি ছিলেন গ্রেটার ওয়াশিংটন জাতীয়তাবাদী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. ইঞ্জিনিয়ার জিয়া উদ্দিন আহমেদ, গেষ্ট অব অনার ছিলেন প্রধান সমন্বয়কারী ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল খালেক এবং আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন নিউজার্সী ষ্টেট বিএনপির সভাপতি নূরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম।

সভায় আমন্ত্রিত অতিথি ছাড়াও বক্তব্য রাখেন ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন কচি, ব্রঙ্কস মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার আব্দস সালাম, নোয়খালী জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, যুক্তরাষ্ট্র জাগপার সভাপতি মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নোমান সিদ্দিকী, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ বাচ্চু, নিউ ইয়র্ক সিটি বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহিদ হেসেন ও জেদ্দা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মীর হোসেন, নিউ জার্সী ষ্টেট বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক নাবীর হোসেন, বিএনপি নেতা মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল মুকুল, গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, মোহাম্মদ রিন্টু আলম, মোহাম্মদ ইউনুস, মোহাম্মদ মনির হোসেন, আশরাফুল হাসান, মোহাম্মদ সম্রাট ও মোহাম্মদ মহিন উদ্দিন প্রমুখ।

প্রধান অতিথি অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর নয়, তার আগেই আওয়ামীলীগ সরকারের পতন হবে ইনশাল্লাহ। কারণ বিএনপির সমাবেশ সরকার বন্ধ করতে পারছে না। বরং সমাবেশে লাখো জনতা পঙ্গপালের মতো ছুটে আসছে। 

প্রধান বক্তা আখতার হোসেন বাদল বলেন, দলের মধ্যে নেতৃত্বের কোন্দল নয়, যোগ্য ব্যক্তিকে যোগ্য পদে চাই। কোন অলৌকিক কমিটি, বাণিজ্য বা পকেট কমিটি নয়। আমরা আসল কমিটি চাই, মাঠের নেতা-কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে যোগ্য নেতৃত্ব ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটি চাই।

সভায় ঘোষিত নিউ ইয়র্ক ষ্টেট বিএনপি’র কমিটির কর্মকর্তারা হলেন: সভাপতি-সালেহ আহমদ মানিক, সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল মুকুল, সহ সভাপতি- শামসুল হক, শরিফুল আলম, প্রফেসর আহসান উল্লাহ মিন্টু, মোহাম্মদ মনির হোসেন, মোহাম্মদ মুরাদ রহমান, মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বাহার, মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান, মোহাম্মদ মাহফুজুল আলম, আবু নাছের ও মোহাম্মদ খায়রুল বাশার, সাধারণ সম্পাদক- মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন শিপন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক- হোসাইন মোহাম্মদ মনির, মোহাম্মদ রিন্টু আলম, মোহাম্মদ সম্রাট, মোহাম্মদ সানোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ মীর হোসেন, মোহাম্মদ কামরুজ্জামান ফরহাদ, মোহাম্মদ মোহন পাটোয়ারী, ফয়সাল আহমদ পাটোয়ারী, সাংগঠনিক সম্পাদক-আশরাফুল আলম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- কামরুজ্জামান লাবলু, মোহাম্মদ নাজমুল হুদা, মোহাম্মদ রিপন ও মাসুদ মিয়া, প্রচার সম্পাদক-তৈমুর রহমান এবং সদস্য যথাক্রমে মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, জাকির হোসেন, মোক্তার হোসেন, মাহবুবুর রহমান, মোহাম্মদ মোতায়ের হোসেন জয়, আব্দুল জলিল, আবুল খায়ের, মোহাম্মদ রিংকু, মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন, মোহাম্মদ শাহেন শাহ, মোহাম্মদ ইমাম আলী, মোহাম্মদ সাদ্দাম হোসেন, মোহাম্মদ হায়দার আলী, মোহাম্মদ রাজু আহমদ ও মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান শিপন। উল্লেখ্য, আলোচনার ভিত্তিতে কোষাধ্যক্ষ পদ পরবর্তীতে পূরণ করা হবে।


বিষয় : যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি আসল কমিটি কমিটি বাণিজ্য

মন্তব্য করুন