ঢাকা-রাজশাহী ও বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কে যানবাহনের চাপ কমেছে

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৯      

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের ঢাকা-রাজশাহী ও বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কে যানবাহনের চাপ ক্রমশ কমতে শুরু করেছে।

বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে সয়দাবাদ ও কড্ডা মোড়ে রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে স্বাভাবিকভাবে চলতে দেখা গেছে ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলগামী যানবাহনগুলোকে।

সকালের মত যানজট বা ধীরগতি নেই এখানে এখন। কড্ডা মোড়ের ১৪ কিলোমিটার পশ্চিমে নলকা ও ধোপাকান্দিতে সওজের ইছামতি সরু সেতুর কারণে দিনভর যানবাহনের কিছুটা ধীর গতি থাকলেও সন্ধ্যার পর তা ধীরে ধীরে তাও স্বাভাবিক হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ওসি সৈয়দ সহিদ আলম রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বলেন, দুপুরের পর থেকে যানবাহনের চাপ কমতে শুরু করেছে। সেতুর পশ্চিম পাড়ে সয়দাবাদ ও কড্ডা থেকে নলকা পর্যন্ত কোন যানজট বা ধীরগতি নেই। নলকা ও ধোপাকান্দিতে সওজের ইছামতি সরু সেতুর কারণে দিনভর কিছুটা যানবাহনের ধীরগতি থাকলেও তা অনেকটা স্বাভাবিক।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপ-পরির্দশক আশরাফ উদ্দিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে জানান, শেষ মুহূর্তে হাটিকুমরুল মোড়ে ঢাকা-উত্তরাঞ্চলের যানবাহনের চাপ
কমে গেছে। এখানে এখন যানজটও নেই। টাঙ্গাইল থেকে যানবাহন সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুল মোড়ে আসার পথে নলকা ও ইছামতি সেতুর কারণে সকাল থেকে কিছুটা ধীরগতির মধ্যে পড়লেও বিকেল ৫টার পর থেকে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।

এদিকে, সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের অবস্থা পরিদর্শনে রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি একেএম হাফিজ আতকার রোববার দুপুরে হাটিকুমরুল মোড়ে আসেন। বঙ্গবন্ধু
সেতুর পশ্চিম পাড়ে কড্ডা, নলকা ও পাঁচিলা এলাকা পরিদর্শন শেষে ট্রাফিক ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে সন্ধায় হাটিকুমরুল মোড়ে মত-বিনিময় করেন। উত্তরের
যানবাহন ঢাকার পথে ফেরার সময় পূর্বের মত যানজট না হয়, সে বিষয়ে ট্রাফিক ও হাইওয়ে পুলিশকে বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেন তিনি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসি মো. আকতার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।