প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর আমরণ অনশন

প্রকাশ: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   

পাবনা অফিস

অনশনরত ওই কলেজছাত্রী -সমকাল

অনশনরত ওই কলেজছাত্রী -সমকাল

পাবনার সাঁথিয়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে আমরণ অনশন শুরু করেছে এক কলেজছাত্রী।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার নাগডেমড়া ইউনিয়নের সোনাতলা নতুন পাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের বাড়িতে অনশনে বসেন ওই ছাত্রী।

এদিকে প্রেমিকা আসার খবর পেয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছেন প্রেমিক হাসান। 

শাহজাদপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি ১ম বর্ষের ওই ছাত্রীর অভিযোগ, প্রায় তিন বছর ধরে হাসানের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হাসান দেড় বছর ধরে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। কিছুদিন আগে মেয়ের বাড়ি থেকে ছেলের বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব পাঠানো হয়। কিন্তু হাসানের বাড়ির লোকজন সেই প্রস্তাব মেনে নেয়নি। পরে হাসানও বিয়ে করতে অসম্মতি জানান। এরপর উপায় না দেখে হাসানের বাড়িতে আমরণ অনশনে বসেছেন তিনি।

ওই ছাত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমি এখান থেকে যাব না। হাসান আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করবো।

এ বিষয়ে হাসানের বাবা আবুল কাশেম বলেন, মেয়ে পক্ষের লোকজন আমার বাড়িতে এসেছিল কয়েকদিন আগে। তখন আমি আমার ছেলেকে জিঞ্জাসা করলে সে এই মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে। পরে আমি তাদের ফিরিয়ে দেই। আজ হঠাৎ মেয়েটি আমার বাড়িতে এসে উঠেছে। 

ওই ছাত্রীর নানা সিরাজউদ্দিন সমকাল‘কে জানান, বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আমরা ছেলের বাড়িতে গেলে তারা জানায়, ছেলের সঙ্গে মেয়ের কোন সম্পর্ক নেই। তাই বিয়ের দাবিতে ছেলের বাড়িতে গিয়ে উঠেছে আমার নাতনী। 

এ ব্যাপারে নাগডেমড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বলেন, আমি এই মাত্র বিষয়টি শুনলাম। ওই বাড়িতে লোক পাঠাচ্ছি খবর নেওয়ার জন্য।